সোশ্যাল মিডিয়ায় আধার কার্ড তৈরীর ভুয়ো খবরে হয়রানি অন্ডালবাসীদের

0
161

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ চলতি মাসের ২২, ২৬ ও ২৭শে আগস্ট তিনদিন অন্ডাল বিডিও অফিসে নতুন আধার কার্ড ও ভুল থাকা কার্ডের সংশোধনের কাজ হবে এই মর্মে জেলাশাসকের সই করা একটি বিজ্ঞপ্তি গত কয়েক দিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে পোস্ট ও শেয়ার করেছেন। আধার কার্ড তৈরি করার এমন সুবর্ণ সুযোগ কেউ হাতছাড়া করতে চাইনি। তাই বৃহস্পতিবার ব্লকের বিভিন্ন জায়গা থেকে অগণিত মানুষ অন্ডাল বিডিও অফিসে জড়ো হন। ভিড় এড়াতে অনেকে আবার সকাল সাতটাতেই পৌঁছে যান বিডিও অফিসে। কিন্তু বেলা এগারোটার পর বিডিও অফিসের কর্মচারীদের জিজ্ঞেস করে তাঁরা জানতে পারেন এখানে কোনও আধার কার্ডের কাজ হচ্ছে না। যা শুনে অনেকে যেমন হতাশ হন আবার অনেকে ক্ষোভ প্রকাশও করেন। উখড়া গ্রামের চন্দনা ঘোষ দক্ষিণ খণ্ডের বিশ্বজিত ঘোষ মদনপুর পঞ্চায়েতের বাসকার বাসিন্দা ধনঞ্জয় বাউড়ি রা জানান আধার কার্ড করানোর জন্য সেই সকাল থেকে দাঁড়িয়ে আছি এখন শুনছি জেলাশাসকের স্বাক্ষর করা বিজ্ঞপ্তি টি ভুয়ো। পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি লক্ষ্মী টুডু জানান এই ধরনের কোনও বিজ্ঞপ্তি তারা প্রকাশ করেনি। কে বা কারা এই বিভ্রান্তি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়াল খোঁজ নিয়ে দেখব বলে তিনি আশ্বাস দেন। অন্যদিকে বিডিও অফিসের নাকের ডগায় দস্তুর মত নতুন অধরা কার্ড তৈরি করে দিতে লিফলেট ছড়িয়েছেন কয়েকজন অসাধু লোক। সেখানেও আধার কার্ড করাতে আসা লোকজন এসে বিভ্রান্ত হচ্ছেন, কারণ সেখানে তাদের কাছে আধার কার্ড করার জন্য টাকা চাওয়া হচ্ছে। সাংবাদিকরা সেখানে পৌঁছাতেই ভোল পালটান তারা। তারা আধার কার্ড তৈরি করার কথা অস্বীকার করেন। কিন্তু যখন তাদের কে তাদেরই ছড়ানো লিফলেট দেখানো হয়,তখন তারা তাদের ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করেন । কিন্তু প্রশ্ন উঠছে স্থানীয়দের মধ্যে এক বিডিও অফিসে নতুন আধার কার্ড হচ্ছে ,এই মর্মে কেও মিথ্যা প্রচার করেছে সোস্যাল মিডিয়ায়, আর বিডিও অফিসের সামনেই চলছে আধার কার্ড তৈরির কারবার। সব মিলিয়ে সাধারণ মানুষ চরম বিভ্রান্তিতে পড়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here