উলঙ্গ করে গৃহবধূকে মারধর, গোটা গ্রাম জুড়ে ঘোরানোর অভিযোগ

0
125

সংবাদদাতা , বীরভূমঃ-

গোটা গ্রাম জুড়ে ঘোরানো হলো উলঙ্গ করে এক গৃহবধূকে। এমনই অভিযোগ গ্রামবাসীদের বিরুদ্ধে । আপাতত আশ্রয় নিয়েছেন পুলিশ ক্যাম্পে ওই নির্যাতিত গৃহবধূ । ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের নানুর থানার খুজিটিপাড়ার গ্রামে। অভিযোগ নানুর থানার খুজুটিপাড়ার টোগরী লোহার বিয়ে হয়েছিল কড্ডা গ্রামের মাখন লোহার সাথে প্রায় ১০ বছর আগে। বিয়ের পর তাদের দুটো সন্তান হয়। গ্রামের একটি ছেলে রঞ্জন লোহারের সঙ্গে টগরি লোহার ২০১১ সালে পালিয়ে যায় । ২০১২ সালের এপ্রিল মাসে গ্রামে ফিরে আসে দুজন। গ্রামে সালিশি সভা বসানো হয় । সালিশি সভায় রঞ্জন লোহার কে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে এলাকার তৃণমূলের নেতারা। ফের সম্পর্কের জোড়া লাগে টগরি লোহার প্রথম পক্ষের স্বামীর সাতে । প্রথম পক্ষের স্বামী মাখন লোহার এর সঙ্গে টগরি লোহার একটি ভাড়া বাড়িতে থাকতে শুরু করেন। বেশ কিছুদিন কেটে যাওয়ার পর টগরি লোহার আবার এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে বিষয়টি জানাজানি হয়। এলাকার মানুষের চাপে গত পরশুদিন যুবকটি বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হয়। তারপর এলাকার ক্ষুব্দ বাসিন্দারা টগরি লোহার কে তার মায়ের বাড়িতে উলঙ্গ করে মারধর করে। মেরে হাত ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। তারপর গোটা গ্রাম জুড়ে ঘোরানো হয় টগরি লোহার কে বলে অভিযোগ। এর পর টগরী লোহার খুজুটিপারা পুলিশ ক্যাম্পে আশ্রয় নিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here