ইন্দাসে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হলেন এক গৃহবধূ মৃত্যুতে বাঁধছে গভীর রহস্য

0
140

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- ইন্দাস থানার খোশবাগ গ্রামে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হলেন এক গৃহবধূ। মৃতার নাম মিতা বাগদি, বয়স আঠারো। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। স্থানীয় এবং পরিবার সূত্রে জানতে পারা যায়, মৃত গৃহবধূর বাপের বাড়ি বর্ধমান জেলার রায়না থানার আরুই গ্রামে। একমাস আগেই ইন্দাস থানার খোশবাগ গ্রামের তোতন বাগদি নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল। আজ হঠাৎই সদ্য বিবাহিত ওই গৃহবধূ গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হলেন। তবে ওই গৃহবধর মৃত্যু নিয়ে ক্রমশই ধোঁয়াশা বাড়ছে। কি কারনে ওই গৃহবধূ আত্মঘাতী হলেন সেই প্রশ্নই এখন পুলিশ ও আত্মীয়-পরিজনদের কাছে ঘুরপাক খাচ্ছে। পরিবার সূত্রে জানা যায় পারিবারিক কোনো অশান্তি ছিল না। কিন্তু তার পরেও কেন সে এমন ঘটনা ঘটালো বুঝে উঠতে পারছেন না পরিবারের কেউই।মৃতার মা বলেন তার জামাইকে কিচ্ছু করবো না। আমার কোল খালি হয়েছে আমি ওর মায়ের কোল খালি করবো না। নিজের সন্তান হারিয়ে জীবনের সবথেকে কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হয় মায়ের এই করুণ আর্তনাদ সকলের কাছেই সন্তান হারানোর কি যন্ত্রনা হতে পারে জামাইয়ের কোন ক্ষতি না চেয়ে তিনি বুঝিয়ে দিলেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছে ইন্দাস থানার পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে বিষ্ণুপুর মহকুমা হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় । তবে কি কারণে তার মৃত্যু হলো পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইন্দাস থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here