দিদি কে বলো কর্মসূচীতে গিয়ে এলাকার মানুষের ক্ষোভের মুখে ওন্দার বিধায়ক

0
83

সংবাদদাতা, বাঁকুড়া :-

দিদি কে বলো কর্মসূচীতে গিয়ে এলাকার মানুষের ক্ষোভের মুখে পড়লেন বিধায়ক । আজ বিকালে ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়া শহর লাগোয়া কেশিয়াকোল এলাকায় । আজ ওই এলাকায় দিদি কে বলো কর্মসূচীতে যান ওন্দার বিধায়ক অরুপ খাঁ । গন্ধেশ্বরী নদীর উপর অস্থায়ী সেতু নির্মানের দাবিতে সেখানেই বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি ।
বাঁকুড়া শহর লাগোয়া গন্ধেশ্বরী নদীর এক পাড়ে আছে বাঁকুড়া শহর অন্য পাড়ে ওন্দা বিধানসভার কেশিয়াকোল গ্রাম । স্কুল কলেজ থেকে শুরু করে বাজার হাট , অফিস আদালত সহ দৈনন্দিন বিভিন্ন প্রয়োজনে কেশিয়াকোল এলাকার বাসিন্দাদের নদীর ওপর পাড়ে বাঁকুড়া শহরে যেতে হয় । এই এলাকার মানুষের যাতায়াতের জন্য সতীঘাটে একটি সেতু ছিল । গতবছরের বন্যায় সেই সেতু ভেঙ্গে যায় । এরপর নতুন উঁচু সেতু নির্মানের কাজ শুরু করে রাজ্য সরকার । কিন্তু টেকনিক্যাল কারনে মাঝপথে সেই সেতু নির্মানের কাজ থমকে রয়েছে ।

নতুন সেতু নির্মান না হওয়া পর্যন্ত নদী পারাপারের জন্য সরকারি ভাবে নদী বক্ষ দিয়ে গতবছর একটি অস্থায়ী রাস্তা নির্মান করা হয়েছিল । এবছরের বর্ষায় সেই অস্থায়ী রাস্তা নষ্ট হয়ে গেলেও পরে আর তা তৈরি করা হয়নি । ফলে কেশিয়াকোল এলাকার মানুষকে নদীর ওপর পাড়ে যাওয়ার জন্য ব্যবহার করতে হয় অনেক দূরে থাকা ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের সেতুকে । ফলে প্রায়শই ঘটে দুর্ঘটনা । এলাকার মানুষ ওই অস্থায়ী রাস্তা নির্মানের জন্য বারবার স্থানীয় বাঁকুড়া দুনম্বর ব্লকের দ্বারস্থ হলে তাঁরা বাঁকুড়া পুরসভার ঘাড়ে দায় চাপায় । বাঁকুড়া পুরসভা পাল্টা দায় চাপায় বাঁকুড়া দুনম্বর ব্লক প্রশাসনের ঘাড়ে । আর এই টানাপোড়েনের মাঝে পড়ে আটকে আছে অস্থায়ী রাস্তা নির্মানের কাজ । আজ ওন্দার বিধায়ক স্থানীয় তৃনমুল নেতাদের সঙ্গে নিয়ে কেশিয়াকোল এলাকায় দিদি কে বলো কর্মসুচীতে গেলে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এলাকার মানুষ । দ্রুত ওই রাস্তা নির্মান না হলে আগামীদিনে আরও বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা । বিধায়ক অবশ্য দাবি করেছেন দ্রুত ওই রাস্তা তৈরির কাজ শুরু করা হবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here