ভিন রাজ্যে পাচারের আগেই উদ্ধার ছাত্রী , গ্রেফতার ৪

0
105

সংবাদদাতা, বসিরহাট :- হিঙ্গলগঞ্জ ব্লক এর সুন্দরবনের রমা পুরের ঘটনাটি ।গত ১৩ সেপ্টেম্বর দ্বাদশ শ্রেণীর তিন ছাত্রী স্কুলে যাওয়ার নাম করে নিখোঁজ হয় । ঘটনাটি হিঙ্গলগঞ্জ ব্লক এর সুন্দরবনের রমা পুরের। বিকেল হয়ে গেলেও বাড়ি ফেরে না তিন ছাত্রী। পরিবার আতঙ্ক গ্রাস , ভয়ে , নিকটতম আত্মীয়ের কাছে মোবাইল ফোনে খোঁজ কারও পাওয়া যায় না। শুক্রবার বিকেল বেলায় তিন ছাত্রীর পরিবার তাদের মোবাইল ফোনের নম্বর ছবিসহ নিখোঁজ ডায়েরি বসিরহাট মহকুমার , হিঙ্গলগঞ্জ থানায় করে। পুলিশ তাদের মোবাইল ফোন নাম্বার ও ছবি সোশ্যাল মিডিয়া সহ রাজ্যের বিভিন্ন থানা বারাসাত, শিয়ালদা, বিভিন্ন রেলের জোনাল অফিসে পাঠিয়ে দেয়। শনিবার রাত দমদম স্টেশনে জিআরপি পুলিশ ট্রেনের চেকিংয়ের সময় , নজরে আসে ৩ ছাত্রীর। প্রত্যেকেরই স্কুল ইউনিফর্ম পরা ছিল ও সঙ্গে দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র কার্তিক প্রামাণিক । কার্তিক প্রামাণিকের বাড়ি সন্দেশখালি থানার খুলনা গ্রামে। রেল পুলিশের তদন্তে জানা যায় কার্তিকের সঙ্গে এক ছাত্রীর সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেম-প্রণয় ও ভালোবাসার সম্পর্ক রয়েছে। সেই সুযোগে প্রেমিকাকে পাচারের চেষ্টা প্রেমিকের। দুই সহপাঠী  সহ চারজনকেই দমদম স্টেশনে রেল পুলিশ আটক করে। মোবাইল নাম্বার ও ছবি মিলিয়ে দেখে হিঙ্গলগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দেয় দমদম স্টেশনে জিআরপি পুলিশ। পুলিশ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র কার্তিক প্রেমিক ও প্রেমিকার দুই সহপাঠীকে গ্রেপ্তার করে । কার্তিকের সঙ্গে এক ছাত্রীর দীর্ঘদিনের ভালোবাসা , সেই সুযোগ নিয়ে পাচারের চেষ্টা করে প্রেমিক ছাত্র কার্তিক । কিন্তু বাকি দুই ছাত্রী কেন সঙ্গে, পিছনে কোন আন্তঃরাজ্য পাচার চক্র রয়েছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখছে হিঙ্গলগঞ্জ থানার পুলিশ। হাসনাবাদ চাইল্ড লাইনের সম্পাদক প্রবীর চক্রবর্তী ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতা করে পাচারের রহস্য খোঁজার চেষ্টা করছে। ছাত্রসমাজ থেকে শিক্ষক শিক্ষিকা ও অভিভাবক অভিভাবকেদের প্রশ্ন কেন প্রলোভনের শিকার ছাত্রীরা । ভালোবাসার ফাঁদে ফেলে প্রেমিকাকে পাচারের চেষ্টা করল ও সঙ্গে দুই ছাত্রীকে ও এর পিছনে কি উদ্দেশ্য ছিল উত্তর খুঁজছে পুলিশ ।ধৃত ছাত্র কার্তিক সহ তিন ছাত্রীকে আজ রবিবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here