বিষ্ণুপুর টেন্ডার দুর্নীতিকাণ্ডে গ্রেফতার আরো ১, চাঞ্চল্যকর তথ্য পুলিশের হাতে

0
367

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- বিষ্ণুপুর টেন্ডার দুর্নীতিকাণ্ডে ফের গ্রেফতার ১। শুক্রবার রাতে গ্রেফতার হলেন শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জী ঘনিষ্ট রামশংকর মহান্তি ডাক নাম খোকন। জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পেরেছে শ্যামা প্রসাদের আর্থিক লেনদেন দেখতো রামশংকর। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ২০ লক্ষ টাকা। উদ্ধার হয়েছে শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ নথি। এদিকে বিষ্ণুপুর পুরসভা থেকে গতকাল একাধিক গুরুত্বপূর্ণ নথি বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। সেগুলি বিভিন্ন দিক খতিয়ে দেখছে তদন্তকারী দল। জিজ্ঞাসাবাদ করে নানান তথ্য উদ্ধার করছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য।

শুক্রবার ‘শ্যামবাবুর ঘনিষ্ঠ’ বলে পরিচিত রামশংকর মহান্তিকে সকালে বিষ্ণুপুর থানায় ডেকে দীর্ঘক্ষণ জেরা করে পুলিশ। পরে, পুলিশ তাকে নিয়ে বাড়িতে যায়। সেখান থেকে তার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের পাশবই, বেশ কিছু নথি-সহ ওই ব্যক্তিকে নিয়ে থানায় ফেরে । বিকেলে পুরসভার আরও এক কর্মীকেও নথিপত্র নিয়ে থানায় ডেকে পাঠানো হয়। তাকেও জেরা করা চলে। পরে পুরসভায় তাকে নিয়ে গিয়ে আরও নথি নিয়ে আসা হয় থানায়। রাতে থানায় পৌঁছন বাঁকুড়ার পুলিশ সুপার ধৃতিমান সরকার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) গণেশ বিশ্বাস। আগে থেকেই সেখানে ছিলেন এসডিপিও (বিষ্ণুপুর) কুতুব উদ্দিন খান। তারা অবশ্য তদন্ত নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

প্রসঙ্গত,গত ২০ অগস্ট বিষ্ণুপুরের প্রাক্তন পুরপ্রধান তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন বিষ্ণুপুরের মহকুমাশাসক অনুপ কুমার দত্ত। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে রবিবার প্রাক্তন মন্ত্রীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে, গ্রেফতার হন পুরসভার প্রাক্তন ওভারসিয়ার তথা বর্তমানে বিশেষ আধিকারিক দিলীপ গড়াই। গতকাল রাতে গ্রেফতার হলেন শ্যামাপ্রসাদ ঘনিষ্ট রামশংকর মহান্তি। গতকালের গ্রেফতার নিয়ে এই কান্ডে গ্রেফতারের সংখ্যা দাঁড়াল ৩।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here