বাঁকুড়া মেডিকেলের ফিভার ক্লিনিকে জ্বর, শ্বাসকষ্ট উপসর্গ নিয়ে ভর্তি থাকা দুই রোগীর মৃত্যু

0
1359

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- বাঁকুড়া মেডিকেলের লোকপুরের ফিভার ক্লিনিকে জ্বর, শ্বাসকষ্ট উপসর্গ নিয়ে ভর্তি থাকা দুই রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল বাঁকুড়া শহর জুড়ে। মৃতদের মধ্যে একজন ১৮ বছরের তরতাজা যুবকও রয়েছে বলে জানা গেছে। এই যুবককে পুরুলিয়ার সাঁতুড়ি থেকে বাঁকুড়া মেডিকেলের ফিভার ক্লিনিকে আজ সকাল আটটা নাগাদ ভর্তি করা হয়। ভর্তির আধ ঘন্টার মধ্যেই প্রচন্ড শ্বাসকষ্ট দেখা দেয় তার এবং এই অল্প সময়ের মধ্যেই মৃত্যুর হয় এই আদিবাসী যুবকের।

অন্যদিকে বাঁকুড়া জেলার বাসিন্দা ৫৪ বছরের আর এক আদিবাসী প্রৌঢ়েরও মৃত্যু হল হাসপাতালে ভর্তির ২৪ ঘন্টার মধ্যে। ইনি গতকাল বিকেলে ফিভার ক্লিনিকে ভর্তি হন। এই রোগীর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য মেদিনীপুর হাসপাতালেএ ল্যাবে পাঠানোর তোড়জোড় শুরু হলেও তার আগেই মারা গেলেন ইনি। দুটি মৃত রোগীর ক্ষেত্রেই করোনার উপসর্গের মিল রয়েছে। যদিও এদের নমুনা পরীক্ষার ফল যেহেতু নেই। তাই এরা করোনা আক্রান্ত এটা নিশ্চিত ভাবে বলা যাবেনা। এবং করোনার জন্যই এদের মৃত্যু হয়েছে তাও নিশ্চিত নয়। অন্য কারনেও মৃত্যু হতে পারে এটাও উড়িয়ে দেওয়া যাবে না। ফলে মৃত্যুর কারণ নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা থেকেই গেল তা বলাই বাহুল্য। তবে সতর্কতা মুলক ব্যবস্থা হিসেবে এই মৃতদেহ সৎকারের আগে কি পন্থা নেওয়া হবে দেখার। আদৌ করোনা রোগীর মৃতদেহ সৎকারের জন্য হুয়ের দেওয়া গাইড লাইন মানা হবে কিনা তা জানতে স্বাস্থ্য ভবনের পরামর্শ চাওয়া হয়েছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। স্বাস্থ্য ভবনের নির্দেশ এলে সেই মতো ব্যবস্থা করবে হাসপাতাল কতৃপক্ষ। পাশাপাশি, হাসপাতাল জীবানুমুক্ত করাও হবে। এবং মৃতদের যারা নিবিড় সংস্পর্শে এসেছেন ও তাদের পরিবারের লোকজনদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে সতর্কতা মুলক ব্যবস্থা হিসেবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here