লকডাউনে দিশেহারা মানুষ, তার মাঝেই হাজির ২২ টি হাতির দল বাঁকুড়ায়

0
325

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- একে লকডাউনে দিশেহারা মানুষ, তার মাঝেই হাজির ২২ টি হাতির দল। রাতভর ড্রাইভ করে পশ্চিম মেদিনীপুরের সীমানায় নিয়ে যাওয়া হল হাতির দলকে। আতঙ্কে বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর ও জয়পুর এলাকা।এলাকার জমিতে থাকা গ্রীষ্ম কালীন সব্জীর ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। তবে গতকালই বন দফতর হাতি খেদানোর কাজ শুরু করে।

বাঁকুড়ার সব্জী উৎপাদক অঞ্চলগুলির মধ্যে অন্যতম বিষ্ণুপুর ও জয়পুর। এই ব্লকগুলির ধবাপুকুর, কুড়িগ্রাম সহ বিভিন্ন এলাকায় এখন মাঠ জুড়ে রয়েছে করল, বীনস, ঝিঙে, ঢ্যাঁড়স সহ বিভিন্ন ধরনের গ্রীষ্ম কালীন সবজী। লক ডাউনের জেরে যথেষ্ট পরিবহন ব্যবস্থা না থাকায় এমনিতেই এবার মার খেতে হচ্ছে সব্জী চাষিদের। বহু ফসল বাজারজাত করতে না পারায় মাঠেই পড়ে নষ্ট হচ্ছে। এরই মাঝে গোদের উপর বিষ ফোঁড়ার মতো হাজির হয়েছে ২২ টি দাঁতালের একটি দল। লক ডাউনের জেরে মানুষ গৃহবন্দী। সেই সুযোগে বাসুদেবপুরের জঙ্গল ও জঙ্গল লাগোয়া এলাকাগুলিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে হাতির দলটি। ইতিমধ্যেই স্থানীয় নতুনগ্রাম, বাকাদহ, বিষ্ণুপুর ও বাসুদেবপুর এলাকায় ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে হাতির দলটি। অবিলম্বে হাতির দলটিকে এলাকা থেকে তাড়াতে না পারলে প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়বে ফসলের ক্ষতি আশঙ্কা কৃষকদের। বন দফতর অবশ্য দাবি করেছে ইতিমধ্যেই হাতিগুলিকে ফের পশ্চিম মেদিনীপুরের সীমানা অবধি ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে। কড়া নজর রাখা হচ্ছে হাতির দলের গতিবিধির উপরেও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here