যৌথ প্রশাসনিক অভিযানে দুর্গাপুরে একটি তেল মিল থেকে উদ্ধার ২৪ টি ব্র্যান্ডের বিভিন্ন রকম তেলের টিন

0
1531

নিজস্ব সংবাদদাতা দুর্গাপুরঃ- আপনি কী স্বাস্থ্য সচেতন? অতিরিক্ত গ্যাঁটের টাকা খরচ করে ব্র্যান্ডেড সর্ষের তেল কেনেন, নিজের ও পরিবারের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে? তাহলে আপনার জন্য একটা দুঃসংবাদ আছে। আপনি অতিরিক্ত পয়সা খরচ করে যে খাবার তেল কিনছেন তা আদৌ নিরাপদ কিনা সে বিষয়ে প্রশ্নচিহ্ন তুলে দিয়েছে সাম্প্রতিক এক ঘটনা। দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলের এক বাজারের একটি তেল মিলে হানা দিয়ে নকল ব্র্যান্ডেড সর্ষের তেলের রমরমা কারবারের হদিশ পেয়েছে খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা। একটা দুটো নয়। ওই মিলে ২৪ টি নামিদামি ব্র্যান্ডের নকল সর্ষের তেলের কারবার চলছিল বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত করোনা অতিমারীর আবহে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন স্তরে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছিল যাতে সাধারণ মানুষকে কোনভাবে খাদ্য সামগ্রীর দুর্নীতির সম্মুখিন হতে না হয়। সেইমতো রাজ্যের বিভিন্ন জেলাতে শুরু হয় অভিযান। পশ্চিম বর্ধমান জেলা প্রশাসন রাজ্য সরকারের বিভিন্ন দপ্তরকে সঙ্গে নিয়ে যৌথ অভিযান শুরু করে। গত কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন বাজারে ও যেখানে খাদ্য সামগ্রী মজুদ হচ্ছে সেসব জায়গায় অভিযান চালান হয়। এই অভিযান চালানোর সময় দুর্গাপুরের সঞ্জীব সরণিতে অবস্থিত একটি (খান্ডেলওয়াল অয়েল মিল) তেল মিলে গিয়ে চক্ষু চরকগাছ হয়ে যায় সংশ্লিষ্ট সরকারি আধিকারিকদের। তাঁরা দেখেতে পান ২৪ রকম সরষের তেলের ব্র্যান্ডের টিনে তেল ভরা হচ্ছে । যেখানে ওই মিলের শুধুমাত্র একটি নির্দিস্ট লেবেলের সরষে তেল বিক্রি করার অনুমোদন রয়েছে। মিল কর্তৃপক্ষ হাতেনাতে ধরা পড়ে গিয়ে নকল ব্র্যান্ডেড তেল কারবারের কথা স্বীকার করে নেয় ও জরিমানা দিতে রাজি হয়ে যায়।

অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গ সরকার অধীনস্থ পশ্চিম বর্ধমান জেলার রেগুলেটেড মার্কেট কমিটির প্রতিনিধিরা তৎক্ষণাৎ ওই তেলমিল কর্তৃপক্ষকে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করে ।

সূত্র মারফৎ জানা গেছে দুর্গাপুর তো বটেই পুরো পশ্চিম বর্ধমান জেলা জুড়ে বিভিন্ন বাজার, তেল মিল, খাদ্য সামগ্রীর গুদামঘরে এই অভিযান চলবে। খাস দুর্গাপুরের বুকে এই ধরনের জালিয়াতির ঘটনায় শিল্পাঞ্চলবাসী একদিকে যেমন শংকিত আবার অন্যদিকে জেলাজুরে রেগুলেটেড মার্কেট কমিটির অভিযানের খবরে কিছুটা হলেও আশাবাদী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here