২৫ ক্যুইন্ট্যাল আটা বাজেয়াপ্ত করল পুলিশ, চাঞ্চল্য বাঁকুড়ায়

0
543

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- সূত্রের খবর,সন্দেহ হওয়ায় কোতুলপুর নাকা চেকিং এ কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীরা আটা বোঝাই একটি পিক আপ ভ্যান আটক করেন গত বুধবার। তবে, ঐ পিক আপ ভ্যানের বৈধ কাগজপত্র দেখাতে পারেননি চালক। চালককে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পারে, গোপীনাথপুরের শালুক গেরে গ্রাম থেকে মাবিয়া গায়েনের বাড়ি থেকে সরাসরি গড়বেতা নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল ঐ খাদ্যবস্তু।

পরে পুলিশ ও খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা ঐ ব্যক্তির বাড়িতে গিয়ে রাত্রে তল্লাশি চালালে সেখান থেকেও রেশনে সরবরাহ করা বেশ কিছু আটা উদ্ধার হয়। খাদ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে এবিষয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে কোতুলপুর থানায়। অভিযুক্ত এখনও পলাতক। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। এবং অন্যদিকে, পুলিশ, বিডিও, একগুচ্ছ আধিকারিক গোপিনাথপুর- এর শালুক গেড়ের একটি গোডাউন থেকে প্রচুর পরিমাণ সরকারি আটা উদ্ধার করে। জানা গেছে, এইসব আটার প্যাকেট গুলো থেকে আটা গুলোকে বের করে বস্তা বন্দি করা হয়েছিল অন্ততপক্ষে ২০০টি বস্তায়।

সেগুলি রেশন দপ্তরের আধিকারিক, কোতুলপুর থানার সি আই অজয় কুমার সিংহ, কোতুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক রাজীব কুমার পাল ও সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক কৃষ্ণেন্দু ঘোষ,ফুড সাপ্লাই অফিসার সহ একাধিক আধিকারিক অভিযান চালিয়ে সরকারি মজুত গোডাউন সিল করে এবং নমুনা সংগ্রহের জন্য তিন প্যাকেট আটা কোতুলপুর থানাতে নিয়ে আসা হয়। স্থানীয় বিধায়ক ও রাজ্যের মন্ত্রী শ্যামল সাঁতরা ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলেন, রাজ্য সরকারের রেশন দ্রব্য নিয়ে কোন ধরণের কালোবাজারি বরদাস্ত করা হবেনা। একই সঙ্গে খাদ্য দপ্তর ও পুলিশের ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, এই ঘটনায় যারা যুক্ত প্রত্যেকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here