ভালোবাসার দিনে চার সারমেয় শাবককে (কুকুর ছানা) হত্যার অভিযোগ বিষ খাইয়ে

0
723

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- ভালোবাসার দিন অর্থাৎ ভ্যালেন্টাইন্স ডের উদযাপন করতে ব্যস্ত শিল্পশহর বাসীরা। পার্কে, শপিংমলে ও বিভিন্ন রেস্তোরায় চলছে দেদার খানাপিনা ও হৈ-হুল্লোড়, আর তারই মাঝে বিষাদের সুর সিটি সেন্টারের অম্বুজা হাউসিং কলোনি এলাকায়। জানা গেছে অম্বুজা হাউসিং কলোনি এলাকার চার নম্বর স্ট্রিটে বেশ কয়েকদিন ধরে দেখতে পাওয়া যাচ্ছিল না কয়েকটি কুকুর ছানাকে(সারমেয় শাবক)। এলাকাবাসীরা জানান এই কুকুরছানা (সারমেয় শাবক) গুলি এখানকারই এক পরিত্যক্ত জায়গায় জন্ম নিয়েছিল এবং তারা সারাদিন ধরেই হৈ-হুল্লোড় করতো এই রাস্তার উপরে। কিন্তু বেশ কয়েকদিন ধরে ওই চার কুকুর ছানাকে (সারমেয় শাবক) দেখতে না পেয়ে সন্দেহ হয় এলাকাবাসির। স্থানীয় বাসিন্দা নীলাঞ্জনা রায় জানান তিনি আজ সকাল থেকেই খুঁজতে শুরু করেন কোথায় গেল ওই চার কুকুরছানা(সারমেয় শাবক)গুলি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর নাকে তীব্র পচা গন্ধ পেয়ে ওই পরিত্যক্ত জায়গাতে ঝোপের মধ্যে দেখতে পান সারি সারি পড়ে রয়েছে চারটি মৃত কুকুর ছানা (সারমেয় শাবক)। সম্ভবত দু-তিন দিন আগেই মারা গিয়েছে ওই কুকুর ছানা(সারমেয় শাবক) গুলি।

নীলাঞ্জনা রায় একজন পশু প্রেমিক ও একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন যা মূলত পশুদের নিয়ে কাজ করে নাম “পূর্ণভূমি ফাউন্ডেশনের” সদস্যও। উক্ত ওই সংগঠনের পক্ষ থেকে নীলাঞ্জন পোদ্দার নামক এক ব্যক্তি স্থানীয় সিটি সেন্টার থানায় এই মর্মে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পাওয়ার পরই নড়েচড়ে বসে পুলিশ প্রশাসন। খবর যায় মহকুমা শাসকের কাছে। মহকুমা শাসক অনির্বান কোলে জানান তিনি বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখার অনুরোধ করেছেন পুলিশ প্রশাসনকে। আজ ওই মৃত কুকুরছানা(সারমেয় শাবক)গুলিকে বস্তাবন্দী করে নিয়ে যাওয়া হবে স্থানীয় পশু হাসপাতালে। কাল সেগুলির ময়নাতদন্ত হবে। কুকুরছানা(সারমেয় শাবক)গুলির মৃত্যুর সঠিক কারণ জানার পরই পুলিশের পক্ষ থেকে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করে দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করবেন বলে তিনি আশ্বাস দেন। স্থানীয় এলাকায় গিয়ে দেখা গেল মৃত কুকুরছানা গুলির মা কুকুরটি(সারমেয়)ওই মৃতদেহ গুলিকে আগলে বসে রয়েছেন এই আশায় যে কখন তারা আবার তার সাথে খেলা করবে। উপস্থিত সকলেরই চোখের জল ফেলার মত অবস্থা ওখানে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্থানীয় বাসিন্দা জানান পেছনের স্ট্রিটের এক ভদ্রলোক বেশ কয়েকদিন ধরেই অভিযোগ করছিলেন কুকুরছানা(সারমেয় শাবক) গুলি তার বাড়ির আশেপাশে নোংরা ছড়াচ্ছে, যদি এইভাবে চলতে থাকে তাহলে তিনি তাদেরকে মেরে ফেলবেন বলে হুমকিও দিয়েছিলেন। কিন্তু কোনোরকম চাক্ষুষ প্রমাণ না থাকায় এলাকাবাসীরা তাকে দোষারোপ করতে পারছেন না। তবে সন্দেহের তীর তারই দিকে বলে জানান এলাকাবাসীরা।ভালবাসার উৎসবের দিনে এমনই এক মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী রইল শিল্প শহর। গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে সিটি সেন্টারের অভিজাত এলাকা অম্বুজা কলোনীতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here