বিধায়ক তহবিল থেকে ইন্দাস ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতকে প্রদান করা হলো অত্যাধুনিক এম্বুলেন্স

0
442

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে রাজ্যের সাধারণ মানুষের সার্বিক উন্নতির দিকে যথেষ্ট নজর দিয়েছেন। এর পাশাপাশি প্রত্যন্ত গ্রামের সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যের দিকেও যথেষ্ট নজর দিয়েছেন তিনি। বাম আমলে প্রায় ভেঙ্গে পড়া স্বাস্থ্যব্যবস্থাকে নতুন রূপে গড়ে তুলেছেন তিনি। বর্তমানে সরকারি হাসপাতাল থেকে স্বাস্থ্য কেন্দ্র সর্বত্রই উন্নত মানের চিকিৎসা পরিষেবা পাচ্ছে সাধারণ মানুষ। আর সে মতই রাজ্য সরকারের আর্থিক সহযোগিতায় বাঁকুড়া জেলার ইন্দাস বিধানসভার বিধায়ক গুরুপদ মেটে তার বিধায়ক তহবিল থেকে ইন্দাস এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতকে একটি অত্যাধুনিক অ্যাম্বুলেন্স প্রদান করলেন। পঞ্চায়েতের অধীনে বসবাসকারী গ্রামের সাধারণ মানুষদের একটা সময় নিজের আত্মীয়দের হাসপাতাল কিংবা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যেতে সমস্যায় পড়তে হতো কিন্তু এই অ্যাম্বুলেন্স পেয়ে আর সেই সমস্যায় পড়তে হবে না। বিধায়কের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সকল সাধারণ মানুষ। এদিন অ্যাম্বুলেন্স এর শুভ উদ্বোধন করেন বিধায়ক গুরুপদ মেটে অ্যাম্বুলেন্স এর শুভ উদ্বোধন করেন। অনেক সাধারন মানুষ রয়েছেন যাদের ব্যক্তিগতভাবে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে রোগীদের নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয় বিশেষ করে সেই সমস্ত মানুষগুলো এই অ্যাম্বুলেন্স পেয়ে খুশি। বিধায়ক গুরুপদ মেটে বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ইন্দাস বিধানসভাকে দিয়েছে, বিধানসভা আজ পঞ্চায়েতের হাতে অ্যাম্বুলেন্সটি তুলে দিল। এম্বুলেন্স পেয়ে উপকৃত হবেন এলাকার সাধারণ মানুষ। তবে সাম্প্রতিক করোনা নিয়ে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকরা আছেন তারা সাধারণ মানুষের যাতে কোনো সমস্যা না হয় সেদিকে নজর দিয়েছেন। ইন্দাস এক নম্বর পঞ্চায়েতের প্রধান শিবানী ধারা বলেন, অ্যাম্বুলেন্সটি পেয়ে আমরা অত্যন্ত খুশি। আগামী দিনে দুঃস্থ মানুষদের যতটা পারবো সাহায্য করবো। এক স্থানীয় বাসিন্দা মহানন্দ বাগদি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন দিনে রাত্রে সব সময় গরীব ও দুস্থরা এই অ্যাম্বুলেন্স পাবে এর ফলে আমরা অত্যন্ত খুশি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here