বাগানের সীমানায় খেলার বল চলে যাওয়ার অপরাধে এক কিশোরকে ধরে বেধড়ক মারধর সেনা কর্মীর, চলল গুলি

0
489

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- একজন সেনা কর্মীর এহেন আচরণে হতবাক বিষ্ণুপুর শহরবাসী। অনুপ্রপবেশকারী জঙ্গি নয়, নয় কোনো চোর ডাকাতও। স্রেফ নিজের সীমানায় খেলার বল চলে আসার অপরাধে এক কিশোরকে ধরে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠল এক প্রাক্তন সেনা কর্মীর বিরুদ্ধে। শুধু ওই কিশোরকে মারধর করেই শান্ত হননি ওই সেনা কর্মী এলাকার মানুষকে নিজের ক্ষমতা দেখাতে দু রাউন্ড গুলিও চালান বলে অভিযোগ। গতকাল বিকালে ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর শহরের খড় বাংলা তাঁতিপাড়ায়। পুলিশ প্রাক্তন ওই সেনা কর্মীকে গ্রেফতার করেছে।অন্যান্য দিনের মতোই রবিবার বিকালে খড়বাংলা তাঁতি পাড়া এলাকায় সবুজ সংঘ লাগোয়া একটি ছোট মাঠে ক্রিকেট খেলছিল স্থানীয় কয়েকজন কিশোর। খেলার সময় আচমকাই একটি ক্রিকেট বল চলে যায় প্রাক্তন সেনা কর্মী স্বরুপ দত্তর বাড়ির উল্টো দিকে থাকা বাগানের মতো ঘেরা জায়গায়। ওই ঘেরা জায়গার মালিক প্রাক্তন সেনা কর্মী স্বরুপ দত্ত হওয়ায় তাঁর বাড়িতে বল ফিরিয়ে দেওয়ার আবেদন নিয়ে যায় স্থানীয় কিশোররা । কিন্তু অভিযোগ স্বরুপ দত্তর বাড়ির তরফে কেউ সাড়া না দেওয়ায় সীমানা ঘেরা বাগানে প্রবেশ করে বল আনতে যায় স্থানীয় কিশোর অভিষেক লক্ষ্মন। বিষয়টি নজরে আসতেই প্রাক্তন সেনা কর্মী স্বরুপ দত্ত অভিষেক লক্ষ্মনকে মাটিতে ফেলে শ্বাসরোধ করে ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ। এই সময় স্থানীয়দের হস্তক্ষেপে কোনোক্রমে উদ্ধার করে অভিষেককে উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয় বিষ্ণুপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। সেখানেই এখনও ভর্তি রয়েছে অভিষেক। এদিকে অভিষেককে মারধরের ঘটনার প্রতিবাদে ঘটনাস্থলে স্থানীয়রা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করলে প্রাক্তন সেনা কর্মী স্বরুপ দত্ত নিজের বাড়ি থেকে একটি বন্দুক নিয়ে ছাদে উঠে দুবার শুন্যে গুলি ছোঁড়েন বলে অভিযোগ। ঘটনার লিখিত অভিযোগ পেয়ে বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ স্বরুপ দত্তকে গ্রেফতার করে। তাঁর বাড়ি থেকে একটি বন্দুক, পাঁচ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও দুটি কার্তুজের খোল উদ্ধার করেছে। আজ স্বরুপ দত্তকে বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে। এলাকার বাসিন্দারা স্বরুপ দত্তর কঠোর শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন। স্বরুপ দত্ত ও তাঁর পরিবার অভিষেককে মারধরের ঘটনার পাশপাশি গুলি চালানোর কথা স্বীকার করেছে। তাঁদের দাবি এলাকার বাসিন্দারা তাঁদের উপর আক্রমন করায় গুলি চালানো হয়েছে। পুলিশ প্রাক্তন সেনা কর্মী স্বরুপ দত্তর বিরুদ্ধে অস্ত্র আইন ও মারধরের আইনে মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। বন্দুক ও কার্তুজগুলি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here