৭১ তম প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে আরাবীয়া মাদ্রাসায় অনুষ্ঠিত হলো শিক্ষামূলক আলোচনা সভা

0
375

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- আজ ২৬ শে জানুয়ারি ২০২০, ৭১ তম প্রজাতন্ত্র দিবস। আজকের এই মহতি দিনটি প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও দেশজুড়ে যথাযথ মর্যাদার সহিত পালন করা হচ্ছে। হিন্দু মুসলিম খ্রিষ্টান জৈন বৌদ্ধ
সকল ধর্মের মানুষ আজকের এই দিনটিকে সমানভাবে সমমর্যাদায় পালন করছেন। আর সেই মতই সোনামুখী ব্লকের রাধামোহনপুর পঞ্চায়েতের বোন্দলহাটিতে মাদানীবাগ ইসলামিয়া আরাবীয়া মাদ্রাসা ২৬ শে জানুয়ারি
উপলক্ষে সুন্দররূপে সেজে উঠেছে। আজ মাদ্রাসায় একটি শিক্ষামূলক আলোচনা সভারও আয়োজন করা হয়। প্রথমেই জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মফতি হাসানাল করিম অনুষ্ঠানের শুভ
সূচনা করেন। এরপর মঞ্চে উপবিষ্ট সকল বিশিষ্ট ব্যক্তিদের বিশেষ সংবর্ধনা জানানো হয় মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের তরফে। আজকের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের সংখ্যালঘু সেলের
সভাপতি আজফার হোসেন, লুৎফর রহমান, মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মফতি হাসানাল করিম, সোনামুখী মহাপ্রভু ধামের সম্পাদক নরেন্দ্রনাথ পাল, মৌলানা আনিরুল সহ একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। বিষ্ণুপুর
সাংগঠনিক জেলার তৃণমূল কংগ্রেস সংখ্যালঘু সেল এর সভাপতি শেখ আজফার হোসেন বলেন, আজকের এই অনুষ্ঠানের প্রধান গুরুত্ব হলো, প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রতিটা মানুষকে ২৬ শে জানুয়ারির গুরুত্ব ও তাৎপর্য
সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরা। এছাড়াও তিনি বলেন আমরা ভারতবাসী হিসেবে এই ভারতবর্ষকে কতটা ভালোবাসি তার একটা উৎকৃষ্ট উদাহরণ হিসাবে আজকে আমরা এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছি। তবে
সাম্প্রতিক কালে এনআরসি আইনের তীব্র বিরোধিতা করেন তিনি। তিনি বলেন এই আইনের বিরুদ্ধে সকলের এক হয়ে লড়াই করা উচিত। মাদ্রাসার সেক্রেটারি আশরারুল মন্ডল বলেন, অনেক মানুষের ধারণা আছে
যে মাদ্রাসা মানে শুধু আরবি পড়ানো হয়, ইসলামের শিক্ষা দেওয়া হয়, এদের মধ্যে দেশাত্মবোধক বলে কিছু নেই। তবে তিনি বলেন আমরা যে এই ধরনের অনুষ্ঠানের সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত এবং প্রত্যেক অনুষ্ঠান
আমাদের মাদ্রাসার ছাত্রদেরকে শেখানো হয়। ভারতবর্ষের প্রতি অন্যান্য জাতির যতটা দরদ রয়েছে আমাদেরও ততটাই রয়েছে। তিনি বলেন হিন্দুস্থানে জন্মেছি হিন্দুস্থানেই মরতে চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here