৭০ বছরের বৃদ্ধের উপর হামলার অভিযোগ পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে

0
530

সংবাদদাতা, আসানসোলঃ- টাকা নে দেওয়ায় বাড়ি তৈরিতে বাধা দিয়ে ৭০বছরের এক বৃদ্ধ তার নাতি সহ তিনজনকে মারধরের অভিযোগ উঠল পঞ্চায়েত প্রধান ও তার দলবলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বারাবনি গ্রাম পঞ্চায়েতের স্টেশন পাড়া এলাকায়।

আক্রান্ত বৃদ্ধ দ্বারিক বার্নওয়াল ও তার নাতি বিট্টু বার্নওয়ালের দাবি বাড়ি বানানোর অনুমতির জন্য বহুবার তারা স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধানের দ্বারস্থ হলেও তিনি অনুমতি দেননি। উল্টে ওই অনুমতি দেওয়ার জন্য পঞ্চায়েত প্রধান নরেশ বাউরি টাকা দাবি করেন বলে দাবি বিট্টুর। এই পরিস্থিতিতে বিভিন্ন সরকারি অফিসে খোঁজখবর নিয়ে বৃদ্ধ দ্বারিক ও তার নাতি জানতে পারেন নিজের জমি হলে পঞ্চায়েতের অনুমতির প্রয়োজন নেই। সেই মতো শুক্রবার সকালে তারা বাড়ি তৈরির কাজ শুরু করেন। অভিযোগ তার কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রধান নরেশ বাউরি দলবল নিয়ে সেখানে হাজির হন ও বাড়ি তৈরির কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন। দ্বারিকবাবু ও তার নাতি সেই নির্দেশ মানতে রাজি না হওয়ায় প্রধান ও তার দলবল তাদের উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ। এমনকি হেলমেট দিয়ে বৃদ্ধের মাথার পিছনে আঘাত করা হয় বলেও অভিযোগ। সেই সময় দ্বারিকবাবুর নাতির এক বন্ধুও ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। তিনও ওই হামলার হাত থেকে রেহাই পাননি বলে দাবি।

যদিও এই ঘটনার কথা অস্বীকার করেছেন বারাবনি গ্রাম পঞ্চায়েতের পঞ্চায়েত প্রধান নরেশ বাউরি। তার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, “বারাবনি স্টেশন পাড়ায় দ্বারিক বার্নওয়াল নামক এক বৃদ্ধ বাড়ি নির্মাণ করার জন্য পঞ্চায়েত অফিসে অনুমতি নেবার জন্য আসে। তাই আজ আমি ওনাকে গিয়ে বলি সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ৩ফুট রাস্তা ছেড়ে বাড়ির কাজ করুন। আমার সাথে ওনার কোনো ঝামেলা বা মারধর হয়নি। ওনার ঝামেলা স্থানীয় কিছু মানুষের সাথে হয়েছে। আর উনি মিথ্যা আমার নামে অপবাদ দিচ্ছেন।মানুষ জানে ওখানে কি হয়েছে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here