দামোদর চরে হানা দিয়ে বালি চুরি রুখলেন দুই বিধায়িকা

0
232

সংবাদদাতা, আসানসোলঃ- দামোদর চরে হানা দিয়ে হাতেনাতে বালি চুরি ধরলেন দুই বিজেপি বিধায়িকা। মঙ্গলবার দামোদর চরে হানা দেন আসানসোল দক্ষিণ ও সালতোড়ার বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পল ও চন্দনা বাউড়ি।

প্রসঙ্গত সরকার রাজ্য়জুড়ে বালি পাচার বন্ধ হয়েছে বলে দাবি করলেও বহুদিন ধরেই পশ্চিম বর্ধমানের দামোদরের চর থেকে বেশকিছু জায়গায় অবৈধভাবে বালি উত্তোলন হচ্ছে বলে অভিযোগ। বিশেষত আসানসোল লোকসভা উপনির্বাচন শেষ হবার পর থেকেই অবৈধভাবে বালি উত্তোলন ও পাচার রমরমিয়ে চলছে বলে স্থানীয়দের একাংশের দাবি।

এদিন দুই বিধায়ক নদীচরে পৌঁছে বালি ভর্তি ট্র্যাক্টর আটকে চালান পরীক্ষা করেন। চালান পরীক্ষা করে দেখা যায় বৈধ পরিমাণের প্রায় তিনগুণ বেশি বালি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ট্র্যাক্টরে করে।

এদিন বিধায়ক অগ্নিমিত্রা বলেন নদীগর্ভ থেকে অবৈধভাবে বালি তুলে পাচার হয়ে যাচ্ছে শিল্পাঞ্চলের বিভিন্ন প্রান্তে। আর বৈধ বালিঘাটের আড়ালেই চলছে অবৈধ কারবার। ঘটনা প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারকে তোপ দেগে তিনি বলেন, “এই সরকার,চোরদের সরকার বালি চুরি করছে। যদিও সরকার বলছে বালি বৈধ ভাবে উত্তোলন করছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে বৈধর আড়ালে অবৈধভাবে বালি চুরি হয়ে যাচ্ছে। প্রত্যেকটা ট্রাক পুলিশ ও থানায় টাকা দিচ্ছে।”

অন্যদিকে সালতোড়ার বিধায়ক চন্দনা বাউড়ি ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, “মেসিন লাগিয়ে যেভাবে অবৈধভাবে নদী গহ্বর থেকে বালি তোলা হচ্ছে তাতে প্রকৃতির ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। পাশাপাশি বর্ষায় বান এলে নদী সংলগ্ন এলাকা ডুবে বিপদে পড়বে এলাকার মানুষ।” বিধায়ক এদিন দাবি করেন স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের সহযোগীতা ছাড়া এভাবে দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে বালি পাচার সম্ভব নয়। বালির এই অবৈধ পাচার রুখতে তারা আন্দোলনে নামবেন বলেও এদিন হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

অন্যদিকে তৃণমূল নেতৃত্ব বিধায়কদের এই অভিযানকে নাটক ও স্টান্ট বাজি বলে কটাক্ষ করেছেন। ঘটনা প্রসঙ্গে তৃণমূল রাজ্য কোর কমিটির সদস্য তথা আসানসোল পৌরনিগমের ৭৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অশোক রুদ্র বলেন, “আসানসোল দক্ষিণের বিধায়কের কাছে আমার অনুরোধ থাকবে আপনি বিধায়ক হিসেবে যেটা কাজ সেটাই করুন। মাঝেসাঝে এইধরনের ফোকাস বাজি এবং সাংবাদিকদের আকর্ষিত করতে নাটক করে কোনো লাভ হবে না। কারণ মানুষ বুঝে গেছে বিজেপি দলটা রাজনৈতিক চরিত্র কি? সারা বছর দক্ষিণের বিধায়ককে পাওয়া যায়না। শুধু খবরের চর্চায় থাকার জন্যেই স্টান্ট বাজি করেন।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here