মমতা ব্যানার্জী প্রধানমন্ত্রী হলে বড়মাকে ভারতরত্ন পুরষ্কারঃ অভিষেক

0
894

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ আগামী ১লা জুনের পর রান্নার গ্যাসের দাম ৪০০ টাকা চান, নাকি ২০০০ টাকা চান – সেই সিদ্ধান্ত আপনাদের নিতে হবে। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী হলে স্বর্গীয় বড়মা বীনাপাণি ঠাকুরকে দেশের সর্বোচ্চ সম্মান ভারতরত্ন সম্মানে ভূষিত করার কথা ঘোষণা করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। লোকসভা নির্বাচনে দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোপালনগরের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী মমতা ঠাকুরের সমর্থনে প্রচারে এসে এমনটাই জানালেন তিনি। তাঁর বক্তব্য, এর আগে বড়মা বীণাপাণি ঠাকুরকে রাজ্য সরকারের তরফে বঙ্গবিভূষণ সম্মানে ভূষিত করা হয়েছে, কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার তথা নরেন্দ্র মোদী ঠাকুরনগরে এসেও বড়মাকে পদ্মশ্রী, পদ্মভূষণ বা ভারতরত্ন কোনও সম্মান প্রদানের কথাই বলেননি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে অভিষেকের বক্তব্য, প্রধানমন্ত্রী দেশের সেনাবাহিনীকে নিয়ে রাজনীতি করছেন। তার ফলস্বরূপ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে বারানসীতে ভোটে দাঁড়িয়েছেন বহিষ্কৃত সেনা জওয়ান তেজ বাহাদুর। প্রার্থী মমতা ঠাকুরকে পাশে নিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জনগণের উদ্দেশ্যে জানান, মমতা ঠাকুরকে ভোট দিন, বনগাঁর উন্নয়নের দায়িত্ব আমি নিজের কাঁধে তুলে নিচ্ছি।
এদিন অভিষেকের সভায় প্রার্থী মমতা ঠাকুর ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, মন্ত্রী তাপস রায়, নীলিমা নাগ, উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের সভাধিপতি বীণা মণ্ডল সহ অন্যান্যরা। অন্যদিকে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের জন্য ইতিমধ্যেই মনোনয়ন পেশ করএছেন তৃণমূল প্রার্থী মমতা ঠাকুর। গত শুক্রবার পঞ্জিকা মতে অমৃতযোগ তিথিতে মনোনয়ন জমা দেন তিনি। সেইসঙ্গে বিজপি তথা শান্তনু ঠাকুরের মতুয়াদের নিয়ে মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি জানান, শান্তুনু ঠাকুর নাগরিকত্ব বিল নিয়ে ১৯০ পাতার খসড়া না পড়েই মন্তব্য করছেন। তিনি জানান, কেন্দ্রীয় সরকারের মতুয়া নাগরিকত্ব বিল মান্যতা যোগ্য নয়, কারণ ওই বিল পাশ হলে মতুয়ারা ভারতের নাগরিক হিসেবে ভোটদানই করতে পারবেন না। স্বভাবতই ফের ভোটের আগে মতুয়া তথা এনআরসি তত্ত্ব উঠে আসছে।