দীর্ঘ সাত বছর পর তৃণমূলের পরাজয় কামনায় মস্তক মুন্ডন বিজেপি কর্মীর !

0
1190

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ ১৩০ কোটির দেশ ভারতবর্ষের মসনদে দ্বিতীয়বার অধিষ্ঠিত হয়েছেন নরেন্দ্র দামোদর দাস মোদি । ২০১৪ সালের নিজেরই গড়া রেকর্ড কে ছাপিয়ে গিয়ে ২০১৯ লোকসভা ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে দিল্লির ক্ষমতায় আবারও বিজেপি তথা নরেন্দ্র মোদি । বৃহস্পতিবার অর্থাৎ ৩০ শে মে দিল্লিতে দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান দেখেছেন সমগ্র দেশবাসী তা বিশ্ববাসী । তবে লোকসভা ভোট এবং প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ আপাতত অতীত । দেশবাসীর ভোটাধিকার দ্বিতীয়বারের জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অধিষ্ঠিত হয়ে নরেন্দ্র মোদির কাছে সামনে চ্যালেঞ্জ এখন অনেক বড় । কারণ ভারতবর্ষের বুকে স্বাধীনতার পর রাজনৈতিক দল হিসেবে কংগ্রেসের একতরফা উত্থান দীর্ঘ ৬০ বছর দেখেছে দেশবাসী । কিন্তু সেই ষাট বছরের বিশাল সাম্রাজ্যে ফাটল ধরতে খুব বেশি সময় লাগেনি দেশবাসীর । তাই দ্বিতীয়বার আগামী পাঁচ বছরের জন্য প্রধানমন্ত্রী .সেবে নরেন্দ্র মোদির কাছে বিশাল এই জনসংখ্যার দেশ চালানোর কাজ মোটেই সহজ হবে না । কিন্তু দেশবাসীর এই আস্থার পূর্ণ মর্যাদা দেওয়ার অঙ্গীকার করে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করে দেশজুড়ে আপাতত মোদি উন্মাদনা তুঙ্গে, যার আঁচ আমরা প্রত্যক্ষ করেছি লোকসভা ভোটের প্রাক্কালেই। কোথাও নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখার আশায় বুক বেঁধেছিলেন একাধিক বিজেপি কর্মী ও সমর্থকরা, অন্যদিকে নরেন্দ্র মোদিকে দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চেয়ে ভগবানের কাছে মানত করতেও পিছুপা হননি সাধারণ মানুষ । কিন্তু তাই বলে নিজের এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসকে পরাজিত করার মানত করে দীর্ঘ ৭ বছর চুল না কেটে ভগবানের কাছে মানত করাও কি বাস্তবে সম্ভব? শুনতে অবাক লাগলেও এই অবাস্তব ঘটনাকেই বাস্তবে রূপ দিয়েছেন বাঁকুড়া জেলার ধবন গ্রামের এক বিজেপি সমর্থক বীরেশ মন্ডল । তার সঙ্গে কথা বলে সমগ্র ঘটনার বিবরণ আমরা পেয়েছি । তার বয়ান অনুযায়ী, দীর্ঘ সাত বছর আগে তিনি শ্রী অনুকুল ঠাকুরের দীক্ষা গ্রহণ করার সময় প্রতিজ্ঞা করেছিলেন যতদিন পর্যন্ত বাঁকুড়ায় নিজের এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেস কে পরাজিত হতে না দেখবেন ততদিন পর্যন্ত তিনি চুল কাটবেন না । অবাক লাগলেও নিজের মুখেই এ কথা স্বীকার করেছেন বীরেশ মন্ডল । তার বয়ান অনুযায়ী গত ২৩ শে মে বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী কে এক লক্ষ ৭৫ হাজার ভোটে পরাজিত করেছেন বিজেপি প্রার্থী ডক্টর সুভাষ সরকার । তাই অবশেষে তার মনোকামনা পূর্ণ হয়েছে । তাই বৃহস্পতিবার একদিকে যখন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দিল্লিতে শপথ নিলেন বিজেপি সুপ্রিমো নরেন্দ্র মোদি তখন বাঁকুড়ার ধবন গ্রামে বিজেপির বিজয় মিছিলে নিজের মস্তক মুন্ডন করে সাত বছরের মানত পূরণ করলেন বীরেশ মন্ডল।

বাঁকুড়া বিজেপি সূত্রে জানা গেছে , বৃহস্পতিবার বাঁকুড়ার ধবন গ্রামে বিজেপির এক মহা বিজয় মিছিলের আয়োজন করা হয়েছিল যেখানে কয়েক হাজার বিজেপি কর্মী সমর্থক যোগদান করেছিলেন । ব্যান্ড পার্টি , বাজনা, কর্মী-সমর্থকদের উল্লাস, আবির খেলা সবই ছিল মিছিলের অন্যতম আকর্ষণ । কিন্তু সবকিছুকেই ছাপিয়ে বাঁকুড়া জেলায় আপাতত মূল আলোচ্য বীরেশ মন্ডলের মস্তক মুন্ডনের ঘটনা।