গলায় খাবার আটকে দুর্ঘটনা, শিশুকে মৃত ঘোষণা পরেও শ্মশানে নড়ে উঠল মৃতদেহ !

0
6772

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়া : বেগুনি খেতে গিয়ে বিপত্তি। গলায় খাবার আটকে শেষপর্যন্ত মৃত্যু হল তিন বছরের শিশুর। ঘটনা বাঁকুড়া জেলার বিষ্ণপুর শহরের কৃষ্ণগঞ্জের। মৃত শিশুর নাম শুভম পাল। জানা গেছে, বিষ্ণুপুরের কৃষ্ণগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা সোমনাথ পাল তার তিন বছরের শিশুকে নিয়ে মামার বাড়ি বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখানেই তিন বছরের শুভম বেগুনি খেতে গিয়ে কোনভাবে গলায় আটকে ফেলে। ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে শুভম জ্ঞান হারিয়ে ফেললে পরিবারের লোকজন তাকে তড়িঘড়ি বিষ্ণুপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে গেলেও শেষরক্ষা হয়নি। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষনা করে। এরপর পরিবারের সদস্যরা শিশুটির দেহ বিষ্ণুপুর কালিন্দী শ্মশানে শেষকৃত্যের জন্য নিয়ে গেলে মাটি চাপা দিতে গেলে শিশুটি নড়ে ওঠে ও মুত্রত্যাগ করে বলে দাবি করে পরিবারের সদস্যরা। ফের তারা শিশুটিকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ফের চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষনা করে। আর এই ঘটনার পরেই চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলে শিশুটির পরিবারের লোকজন হাসপাতালে ব্যাপক ভাঙচুর ও বিক্ষোভ শুরু করে বলে অভিযোগ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। তবে মৃত শিশুর বাবা সোমনাথ পালের বক্তব্য, ভাঙচুরের সাথে তাদের পরিবারের কেউ জড়িত নেই। হাসপাতাল সুপার চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ মানতে চাননি। পরে পরিবার মৃত শিশুর পরিবারের তরফেও গাফিলতির অভিযোগ তুলে নেওয়া হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here