কয়লা মাফিয়া পাপ্পু সিং খুনের ঘটনায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড রাজু দুবে ও চন্দন দুবের

0
3779

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়: ২০১৮ সালের ৯ মার্চ কাঁকসার গড় জঙ্গল থেকে কয়লা মাফিয়া পাপ্পু সিং এর মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় অভিযুক্ত রাজু ও চন্দন দুবে নামে দুজনকে দোষী সাব্যস্ত করে সাজা ঘোষণা করল আদালত । বৃহস্পতিবার বাঁকুড়া আদালতের বিচারক বনজ্যোতি ভট্টাচার্য অভিযুক্ত দুজনের সাজা ঘোষণা করেন । জানা যায় ২০১৮ সালের ৯ মার্চ গভীর রাতে পাপ্পু সিং কে বাড়ি থেকে জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়ার দায় বাঁকুড়ার মেজিয়া থানা অভিযোগ দায়ের করেছিলেন পাপ্পু সিং এর স্ত্রী সোনালী সিং । এরপর পশ্চিম বর্ধমানের কাঁকসা থানার গড় জঙ্গল এলাকা থেকে পাপ্পু সিং এর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ । ঘটনার তদন্ত শুরু করে পুলিশ রাজু দুবে ও চন্দন দুবের নাম জানতে পারে । এর পর ওই দুই জনের বিরুদ্ধে মেজিয়া থানার পুলিশ ৩০২, ২০১, ৩৬৪ ইত্যাদি ধারায় মামলা দায়ের করে । পুলিশের চোখে ধুলো দিতে দুই অভিযুক্ত গা ঢাকা দিলেও ২০১৮ সালের ২৯ শে মার্চ কলকাতার করুনাময়ী বাস স্ট্যান্ড এলাকা থেকে রাজুকে গ্রেফতার করে পুলিশ । এর ঠিক এক মাস পর ২৪ শে এপ্রিল দক্ষিণ ২৪ পরগনা থেকে গ্রেফতার হয় অভিযুক্ত চন্দন দুবে। দুই অভিযুক্ত গ্রেফতার হওয়ার পর মামলা গড়ায় বাঁকুড়া আদালতে। বিচারক বনজ্যোতি ভট্টাচার্যের এজলাসে ১৮ জন সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে শেষ পর্যন্ত দুই অভিযুক্তকে পাপ্পু সিং খুনের ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। এরপর গতকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার বাঁকুড়া আদালত শুরু হয় দুই অভিযুক্তের শাস্তি দান প্রক্রিয়া। অভিযুক্তদের ৩০২ নং ধারায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ড এবং নগদ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেওয়া হয়। ৩৬৪ ধারা অনুযায়ী জোর করে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অপরাধে ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ২০১ নং ধারায় ৫ বছরের কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানা। জরিমানা অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেয় আদালত।