মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের উদ্যোগ, লকডাউনে আটকে দেড় মাস পর রাজস্থান থেকে বাংলায় ফিরলেন পর্যটকদের দল

0
608

সংবাদদাতা, আসানসোলঃ- করোনা ভাইরাসের মোকাবিলা লকডাউনের কারণে গত দেড় মাস ধরে রাজস্থানের আজমেঢ়ে আটকে ছিলেন কলকাতার বাসিন্দা পর্যটকদের একটি দল। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের চেষ্টায় সেই পর্যটন দলটি রবিবার রাতে বাংলা – ঝাড়খণ্ড সীমান্ত ডুবুরডিহি চেকপোস্ট হয়ে বাংলায় ফিরলেন। এদিন রাতে সবাইকে কুলটির চৌরঙ্গী মোড়ের কাছে ২ নং জাতীয় সড়ক লাগোয়া পেনোরামা পার্কের রিসোর্টে রাখা হয়। তাদের দেখতে ও তাদের পাশে দাঁড়াতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশে রাতেই আসানসোল পুরনিগমের মেয়র তথা পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃনমুল কংগ্রেসের সভাপতি জিতেন্দ্র তেওয়ারি সেখানে পৌঁছে যান। তিনি তাদের সঙ্গে দেখা করে খোঁজ খবর নেন ও খাবারের ব্যবস্থা করেন। মেয়র সবাইকে আশ্বস্ত করে বলেন, সকালে গাড়ি করে তাদেরকে কলকাতায় তাদের পৌঁছানোর যথাযথ ব্যবস্থা করা হবে।

পরে মেয়র বলেন, গত দেড় মাস ধরে রাজস্থানের আজমেঢ়ে কলকাতার এই পর্যটকদের দলটি লক ডাউনের কারণে আটকে ছিলো। যাদেরকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের চেষ্টায় বাংলায় ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরা সবাই এদিন রাতে ডুবুরডিহি চেকপোস্ট পার করে বাংলায় ঢুকেছে। রাত হয়ে যাওয়ায় তাদের এখানে একটি রিসোর্টে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে
এদের সবাইকে সকালে গাড়িতে কলকাতায় পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। মুখ্যমন্ত্রী নিজে গোটা বিষয়ে নজরদারি করছেন। পাশাপাশি সাংসদ অভিষেক বন্দোপাধ্যায়ও লাগাতার এই ব্যাপারে খোঁজ খবর নিচ্ছেন। মেয়র আরো বলেন, প্রথমে পড়ুয়াদের রাজস্থানের কোটা থেকে বাংলায় ফিরিয়ে আনা হয়। এরপর আটকে পড়া পর্যটকদের সেই রাজস্থান থেকে বাংলায় ফিরিয়ে আনা হলো। এইসব কিছুই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের জন্য সম্ভব হয়েছে। তিনি দেশের অন্য রাজ্যে বাংলার যারা আটকে পড়ে আছেন তাদেরকেও ফিরিয়ে আনার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

অন্যদিকে, আজমেঢ় থেকে এদিন রাতে বাংলায় ফিরে আসার পরে, ঐ পর্যটকরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here