বাংলা বনধের সমর্থনে জায়গায় জায়গায় বিজেপি’র বিক্ষোভ

0
602

সংবাদদাতা,আসানসোল,দুর্গাপুর,বাঁকুড়াঃ- রাজ্যের ২০টি জেলায় ১০৮ টি পুরসভায় নির্বাচনে ‘সন্ত্রাস এবং ভোট লুঠের’ প্রতিবাদে সোমবার ১২ ঘণ্টার বাংলা বন্‌ধের ডাক দিয়েছে বিজেপি। পাশাপাশি পুরভোট বাতিল করে নতুন করে ভোট করার দাবিও তুলেছে তারা। যদিও রাজ্য প্রশাসন জানিয়ে দিয়েছে, জনজীবন সচল রাখার জন্য যাবতীয় ব্যবস্থাই নেওয়া হবে। সেই মতো সোমবার সকাল থেকে বনধ রুখতে তৎপর প্রশাসন।

সোমবার সকাল থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন এলাকার পাশাপাশি দুর্গাপুরে বনধের সমর্থনে পথে নামে বিজেপি। এদিন দুর্গাপুর বাজারে বনধের সমর্থনে বিজেপি বিধায়ক লক্ষণ ঘোড়ুই -এর নেতৃত্বে বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকেন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। বিক্ষোভ রুখতে গেলে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি বেধে যায় বিধায়ক ও কর্মী-সমর্থকদের। এরপরই পুলিশ বিজেপি বিধায়ক লক্ষণ ঘোড়ুই-সহ কয়েক জন কর্মী সমর্থককে গ্রেফতার করে। দুর্গাপুর বাজারের পাশাপাশি পানাগড় বাজারেও এদিন মিছিল ও পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি নেতা কর্মীরা। পানাগড় বাজারের চৌমাথা মোড়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভে সরব হন বর্ধমান সদরের বিজেপির জেলা সভাপতি রমন শর্মা ও বিজেপি কর্মীরা। পথ অবরোধের জেরে যানজটের সৃষ্টি হয়। যদিও কাঁকসা থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী বিক্ষোভকারীরা হটিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করে। পাশাপাশি রাস্তা অবরোধের জন্য প্রায় ১০জন বিজেপি কর্মী সমর্থককে আটক করে পুলিশ।

দুর্গাপুর ও পানাগড় বাজারে বিজেপির বিক্ষোভ অবরোধ

অন্যদিকে আসানসোলের নিয়ামতপুর মোড়ে আসানসোল পৌরনিগমের বিজেপি কাউন্সিলর অমিত তুলসিয়ানের নেতৃত্বে বিজেপি কর্মী সমর্থকরা কিছুক্ষণের জন্য নিয়ামতপুর আসানসোল প্রধান রাস্তা অবরোধ করে । কিছুক্ষণ এই অবরোধ চলার পর নিয়ামতপুর ফাঁড়ির পুলিশ গিয়ে অবরোধ তুলে দেয়। এছাড়াও আসানসোলের গীর্জা মোড় এলাকায় বিজেপি কর্মীরা প্রায় ৩০ মিনিট ধরে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে ও পথ অবরোধ করে। পরে পুলিশ গিয়ে অবরোধ তুলে দেয় ও ১৫ জন বিজেপি কর্মীকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। এর পাশাপাশি আসানসোলের দক্ষিণ থানার অন্তর্গত গির্জা মোড় এবং বার্নপুর ত্রিবেণী মোড়ে বিজেপি কর্মী এবং সমর্থকরা পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। সেখানেও বিশাল পুলিশবাহিনী পৌঁছে যায় এবং বিজেপি কর্মী সমর্থকদের হটিয়ে দিয়ে অবরোধ তুলে দেয়। গ্রেফতার করা হয় একাধিক বিজেপি কর্মী সমর্থককে।

বাঁকুড়াতেও এদিন বনধের সমর্থনে পথে নেমে সরব হয় বিজেপি কর্মীরা। এদিন বাঁকুড়া-দুর্গাপুর রাজ্য সড়কের উপর বড়জোড়া চৌমাথা অবরোধ করে বিজেপি কর্মীরা । পুলিশ অবরোধ তুলতে গেলে অবরোধকারীদের সঙ্গে বচসা শুরু হয় । যদিও পরে পুলিশ জোর করেই অবরোধ তুলে দেয় । অন্যদিকে ওন্দা বিধানসভার বিজেপি বিধায়ক অমরনাথ শাখার নেতৃত্বে ওন্দায় ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে বিজেপি কর্মীরা । বিক্ষোভের জেরে ব্যাপক যানজট পরিস্থিতি তৈরি হয়। পরে পুলিশ গিয়ে বিক্ষোভকারীদের হটিয়ে দেয়। এছাড়া এদিন বাঁকুড়া শহরে মিছিল ও ভৈরবস্থান সার্কিট হাউসের সামনে প্রতিকী পথ অবরোধ করে বিজেপি নেতা কর্মীরা। উপস্থিত ছিলেন দলের বাঁকুড়া জেলা সভাপতি সুনীল রুদ্র মণ্ডল, বিধায়ক নীলাদ্রী শেখর দানা সহ অন্যান্য নেতৃত্ব। আর এই পথ অবরোধের মাঝেই বাইক নিয়ে ঢুকে পড়েন বাঁকুড়া-২ নম্বর ব্লক তৃণমূল সভাপতি ধ্রুবতারা ব্যানার্জী সহ অন্যান্য তৃণমূল কর্মীরা। অবরোধকারীরা তাদের আটকে দিলে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here