আততায়ীর ধারালো অস্ত্রের কোপ, প্রাণে বাঁচলেন বিজেপি প্রার্থী

0
1171

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ পুরুলিয়ার বিজেপি প্রার্থী জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোকে লক্ষ্য করে ধারালো অস্ত্রের কোপ। অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় ধারালো অস্ত্রের কোপে গুরুতর আহত হলেন এক বিজেপি কর্মী। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পুরুলিয়ায় পুরুলিয়া ঝালদা ২ নম্বর ব্লকের মাঝিডি গ্রামে। জানা গেছে, শুক্রবার বিজেপি প্রার্থী জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে মাঝিডি গ্রামে ভোট প্রচার করছিলেন। অভিযোগ সেইসময় এক আততায়ী আচমকায় জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোকে লক্ষ্য করে ধারালো অস্ত্রের কোপ মারলে অল্পের জন্য তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে তার পাশাপাশি থাকা শালিগ্রাম মাহাতো নামে এক বিজেপি কর্মীর গলায় লাগে। রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন ওই ব্যক্তি। আহত ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করার ফাঁকেই সুযোগ বুঝে গা ঢাকা দেয় ওই অভিযুক্ত আততায়ী। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই বিজেপি কর্মী পুরুলিয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনায় পুরুলিয়া জেলা বিজেপি সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী শাসক দল তৃণমূলের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলছেন। তার অভিযোগ, তৃণমূল আশ্রিত দুস্কৃতিই তাদের প্রার্থীকে খুনের চেষ্টা করেছিল, কিন্তু হামলা লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় আহত হন এক বিজেপি কর্মী। যদিও অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন পুরুলিয়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক নবেন্দু মহালি। তাঁর বক্তব্য, এই হামলার সঙ্গে তৃণমূলের কোনও যোগাযোগ নেই। এটা সিপিএম ও বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষ। অন্যদিকে ভোটের আগে ফের জঙ্গলমহল বাঁকুড়ায় আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বাঁকুড়ার সারেঙ্গার সারুলিয়ার জঙ্গলের কাছে একটি ব্রিজের কাছ থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করল সারেঙ্গা থানার পুলিশ। সারুলিয়ার ক্যানেলের পাশে গাছের ডাল ও পাতা দিয়ে ঢাকা একটি বন্দুক ও এক রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকেই জেলার বিভিন্ন জায়গায় গাড়ি থামিয়ে তল্লাশি জোরদার করা হয়েছে। ভোট চলাকালীন অশান্তি ও সন্ত্রাস এড়াতে পুলিশি তরফে সবরকম ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে বলা জানানো হয়েছে।