তৃনমুল যুব কংগ্রেসের উদ্যোগে জামুড়িয়ার তপসিতে রক্তদান শিবির

0
241

সংবাদদাতা, জামুড়িয়াঃ- তৃনমুল যুব কংগ্রেসের জামুড়িয়া ২নং ব্লকের উদ্যোগে তপসিতে সোমবার এক রক্ত দান শিবিরের আয়োজন করা হয়। পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃনমুল কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক কর্ণেল দীপ্তাংশু চৌধুরী ও আসানসোল পুরনিগমের মেয়র তথা পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃনমুল কংগ্রেসের সভাপতি জিতেন্দ্র তেওয়ারি যৌথ ভাবে সেই রক্তদান শিবিরের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে মেয়র বলেন, টিভিতে বিজেপি বলছে, ২০২১ সালে ক্ষমতা আসবো জনতার সেবা করতে হবে। গত ২ মাসে গোটা জেলায় দলের কর্মীরা,২০০ রক্তদান শিবিরের আয়োজন করেছে। বিজেপিকে ভোটে জিততে হলে, কমপক্ষে ২০১ টা রক্ত দান শিবিরের আয়োজন করতে হবে। আমার কাছে কোন খবর নেই যে এই সময়ে বিজেপি একটাও রক্ত দান শিবিরের আয়োজন করেছে। আমরা রক্ত দান শিবির করছি। হাসপাতালে ভর্তি যেসব রোগীর রক্তের প্রয়োজন, এই রক্ত তাদের কাজে লাগবে। এই রক্ত যাদের দেওয়া হচ্ছে, তারমধ্যে অনেকেই বিজেপির কর্মী ও সমর্থক হতে পারে। তৃনমুল কংগ্রেসের কর্মীরা রক্ত দান করছেন। সেই রক্ত সিপিএম ও বিজেপিকে দেওয়া হচ্ছে। তৃনমুল কংগ্রেসের কর্মী দের দেওয়া রক্ত বিজেপির কর্মী দের দেওয়া যাবে না, আমরা তা বলছি না। তিনি আরো বলেন, জেলায় যেখানে যেখানে আমাদের বিধায়ক নেই, দিদির নির্দেশে সেখানে কর্ণেল দীপ্তাংশু চৌধুরী যাচ্ছেন। দিদি ভালো করে জানেন যে, এই সংকটের সময় তৃনমুল কংগ্রেস ছাড়া আর কেউ সাধারণ মানুষের কাজে লাগবে না। তারজন্য রানিগঞ্জ, জামুড়িয়া ও দূর্গাপুর পূর্বের বিশেষ দায়িত্ব কর্ণেল দীপ্তাংশু চৌধুরীকে দেওয়া হয়েছে। তারজন্য তিনি লাগাতার এইসব এলাকায় যাচ্ছেন। কর্ণেল দীপ্তাংশু চৌধুরী বলেন, রক্ত দান শিবিরের আয়োজনে এই পশ্চিম বর্ধমান জেলা রাজ্যের মধ্যে প্রথম স্থানে আছে। যারা তৃনমুল কংগ্রেসকে হৃদয় দিয়ে ভালোবাসেন তারাই এখানে রক্ত দান করছেন৷ সেই রক্তে অনেক মানুষের প্রাণ বাঁচছে। রক্তের কোন জাত, ধর্ম ও রং হয়না। তৃনমুল কংগ্রেসের সৈনিকরা রক্ত দান করে জীবন দান করছেন। তিনি আরো বলেন, গত ৪ মাসে এখানের সাংসদ ও বিধায়ককে সংকটের সময় দেখা যায় নি। এটা সত্যি যে, যখন সংকট আসে, তখন কোন রকম ভেদাভেদ না করে, তৃনমুল কংগ্রেসের সৈনিকরা কাজ করেন৷ এই রকম সামাজিক কাজ কেউ করেনা৷ বাবুল সুপ্রিয় ২০১৪ ও ২০১৯ সালে ভোটের সময় দেখা যায়। যেমনভাবে দীপাবলির সময় কিছু পোকা আসে। আবার দীপাবলির পরে গায়েব হয়ে যায়। সেই মতো এরাও ভোটের পরে গায়েব হয়ে যায়। তিনি আরো বলেন, ২০২১ সালে তৃনমুল কংগ্রেস পুরো ক্ষমতা নিয়ে আবার আসবে। তারজন্য শপথ নিতে হবে যে, ২০২১ সালে জামুড়িয়া বিধান সভা আসন জিতে দিদিকে উপহার হিসাবে দেবো। তারজন্য সাধারণ মানুষের কাছে গিয়ে বাস্তবিকতা বোঝাতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here