পঞ্চায়েত ও সীমান্তরক্ষী বাহিনীর যৌথ উদ্যোগে রক্তদান শিবির

0
354

সংবাদদাতা, মুর্শিদাবাদ:-

উদ্যোগ সীমন্তের একটি গ্রাম পঞ্চায়েতের কিন্তু তাতে নিজেদের যুক্ত করে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে রক্তের বন্ধনে জড়িয়ে পড়ল সীমন্ত রক্ষী বাহিনী । এদিকে সীমন্ত রক্ষী বাহিনী অর্থাৎ বি এস এফের এই সবতস্ফূরত মনোভাবে বেজায় খুশী সীমন্ত বর্তী এলাকার সাধারণ মানুষ । এই ব্যাপারে ৩৫ ব্যাটেলিয়ানের সাব ইনস্পেক্টর শ্রী বলরাম ভকত বলেন , “ আমাকে স্থানীয় পঞ্চায়েত থেকে রক্ত দান শিবিরে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রন জানান হয়েছিল । এই আমন্ত্রন পেয়ে আমিও ব্যাটেলিয়ানের জওয়ান নিয়ে এসে রক্ত দান করি এবং এলাকার একটি বিদ্যালয় ও পঞ্চায়েতে সাফাই সাফাই অভিযান চালাই । এতে এলাকার মানুষের সঙ্গে জওয়ানদের আত্মিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে ।” বি এস এফের এই সাফাই অভিযানে ঝাড়ু হাতে দেখা যায় লালগোলা ওসি সৌম দে , পঞ্চায়েত প্রধান আলমগীর , মিনারুল ইসলাম বকুলদের মতো পঞ্চায়েতের নির্বাচিত সদস্যকে ।লালগোলা থানার সীমন্ত বর্তী বিলবোরা কোপরা গ্রাম পঞ্চায়েতের উদ্যোগে মঙ্গলবার রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয় । এই উপলক্ষে স্থানীয় ৩৫ নম্বর ব্যাটেলিয়ান কে আমন্ত্রণ করা হয় । কিন্তু এদিন আচমকা একদল বি এস এফ আচমকা রক্তদান শিবিরে হাজির হয়ে স্বেচ্ছায় রক্ত দান করেন । শুধু রক্ত দিয়েই তারা ফিরে যান নি ওই ব্যাটেলিয়ানের অন্যন্য জওয়ানরা এলাকার পঞ্চায়েত এবং একটি বিদ্যালয়ে সাফাই অভিযান চালান । এই ব্যাপারে বাবালি বাড়িওয়াল নামের এক রক্তদাতা মহিলা জওয়ান বলেন , “ আমরা সারা বছর সীমন্তে কাজ করি ইচ্ছে থাকলেও রক্ত দান করার সুযোগ থাকে না ।ফলে সীমন্তের কাছে এই সুযোগ আর হাত ছাড়া করতে পারিনি ।এদিকে বি এস এফের এই মনোভাবে খুশি এলাকার সাধারণ মানুষও । এই বিষয়ে আয়োজক পঞ্চায়েতের প্রধান আলমগীর বলেন ,” আমরা বি এস এফ কে আমাদের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে বলেছিলাম । কিন্তু ওরা এই ভাবে হাজির হয়ে আমাদের কাজে সাহায্য করবে ভাবিনি । সীমন্তের জওয়ানদের সঙ্গে সাধারণ মানুষের এই বন্ধন অত্যন্ত জরুরী ।“

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here