এক সপ্তাহে দ্বিতীয়বার হাতির আক্রমণে আবারও মৃত্যু গ্রামবাসীর

0
1200

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ এক সপ্তাহে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার বাঁকুড়ায় দাঁতালের আক্রমণ। ফের দাঁতালের আক্রমণে প্রাণ হারালেন এক গ্রামবাসী। ঘটনা বাঁকুড়ার বড়জোড়া রেঞ্জের সংগ্রামপুর বীটের গোঁসাইপুর এলাকার। মৃতের নাম গৌড়হরি ঘোষ। বাড়ি বেলিয়াতোড়ের গোসাইপুর গ্রামে। এলাকাবাসীদের বয়ান থেকে জানা গেছে, রবিবার ভোরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে চাষের জমিতে কুমড়ো চাষ করতে গিয়েছিলেন গৌড়হরি দাস নামে বছর ৫৫-র ওই ব্যক্তি। প্রত্যক্ষদর্শী এক গ্রামবাসী শঙ্কর মন্ডল জানান, মাঠে সেইসময় অনেকেই চাষআবাদ করছিল আচমকায় বেশকয়েকটি দাঁতালের একটি দল জঙ্গলে ফেরার সময় একটি দাঁতাল পেছন থেকে ওই ব্যক্তির ওপর হামলা করে। হাতির আক্রমণের ভয়ে বাকিরা পালিয়ে গেলেও পেছন থেকে হামলা করায় কিছু বুঝে ওঠার আগেই দাঁতালটি ওই ব্যক্তিকে শুঁড়ে করে তুলে আছাড় মেরে পা দিয়ে থেঁতলে দেয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। এরপর গ্রামবাসীরা একজোট হয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছালেও ততক্ষনে প্রাণ হারিয়েছেন আক্রান্ত ওই ব্যক্তি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় গোঁসাইপুর এলাকায়। হাতির আক্রমণে এক ব্যক্তির মৃত্যুর খবর পৌঁছাতেই ঘটনাস্থলে যান বড়জোড়া রেঞ্জার বিশ্বজিৎ মাল ও বনদফতরের আধিকারিকরা। তাদেরকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে এলাকাবাসীরা। পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বাঁকুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, একের পর এক হাতির হানায় প্রাণ হারাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। আর কতদিন এভাবে দাঁতালের অতর্কিতে আক্রমণে প্রাণ হারাবেন গ্রামবাসীরা, এই অভিযোগে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। বারবার এভাবে হাতির হানা এবং প্রায় প্রত্যেকবারই গ্রামবাসীদের ওপর দাঁতালের এহেন আক্রমণের ঘটনায় রীতিমতো আতঙ্কে বাঁকুড়াবাসী। উল্লেখ্য চলতি মাসের ২৩ তারিখেই বাঁকুড়ার পুরুষোত্তমপুরে হাতির আক্রমনে মৃত্যু হয়েছিল এক ব্যক্তির। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের একই সপ্তাহে হাতির হানায় মৃত্যু হল আরও একজনের।