‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি’-কে কেন্দ্র করে এবার “লঙ্কাকান্ড” বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে

0
1020

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ ফের রাজনৈতিক সংঘর্ষের শিরোনামে বাঁকুড়া। এবার বিজেপির “জয় শ্রী রাম” ধ্বনি উচ্চারণকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বাঁকুড়ার পাত্রসায়ের থানা এলাকার কাঁকরডাঙ্গা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের চালানো গুলিতে তিনজনের আহত হওয়ার অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। জানা গেছে, ঘটনার শুরু শনিবার বিকেলে রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে পাত্রসায়রে তৃণমূল কংগ্রেসের ‘জনসংযোগ যাত্রা’ কর্মসুচী ছিল। সেই যাত্রা শেষে শুভেন্দু অধিকারী ফেরার মুহূর্তেই গন্ডগোলের সূত্রপাত। বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূলের মিছিলে কয়েকজন বহিরাগত দুষ্কৃতি ছিল। মিছিল শেষে জনা কয়েক দুষ্কৃতি বিজেপির পাত্রসায়র মণ্ডল-২ সভাপতি তমাল কান্তি গুঁই-র দোকানে বিনা প্ররোচনায় হামলা চালায় বলে অভিযোগ। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা বাধা দিতে গেলে দুপক্ষের মধ্যে বচসা শুরু হয়। সেইসময় বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা মন্ত্রীর গাড়ির সামনে “জয় শ্রী রাম” ধ্বনি দিতে থাকলে পুলিশ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে গুলি চালায় বলে অভিযোগ বিজেপির। গুলির আঘাতে সৌমেন বাউরী নামে এক কিশোর, তাপস বাউরী ও টুলু খাঁ তিনজন আহত হয়। তাদের বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পুলিশের গুলি চালানোর প্রতিবাদে মুহূর্তে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত হয় কাঁকরডাঙ্গান এলাকা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে নামে বিশাল পুলিশবাহিনী। বিজেপির অভিযোগ, বিনা প্ররোচনায় পুলিশ নিরীহ মানুষের ওপর গুলি চালিয়েছে। ঘটনার পর রাত পেরোলেও রবিবার সমগ্র এলাকা থমথমে। দোকানপাট বন্ধ, রাস্তাঘাটে মানুষজন তেমন নেই বললেই চলে। এখনও এলাকায় পুলিশ টহলদারি চলছে।