ভিন রাজ্যে নয় এবার স্নায়ুরোগের চিকিৎসা করুন এরাজ্যেই

0
1210

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ স্নায়ুরোগে কষ্ট পাচ্ছেন? পরিবারের কোনও পরিজনের দীর্ঘ স্নায়ুরোগের চিকিৎসার জন্য ভিন রাজ্যে গিয়েও সুস্থ করতে পারেন নি। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় এমন মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়। তবে এবার থেকে স্নায়ু সংক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য আর ভেলোর, চেন্নাই, বেঙ্গালুরুর মতো ভিন রাজ্যে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না। কারণ মুম্বাইয়ের পরে এবার পশ্চিমবঙ্গ নার্ভ তথা স্নায়ু সংক্রান্ত জটীল থেকে জটিলতর রোগের জন্য বিশেষ চিকিৎসা ব্যবস্থা নিয়ে এল নিউরোজেন ব্রেইন এন্ড স্পাইন ইনস্টিটিউ। সম্প্রতি মেদিনীপুরে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে এমনটাই জানিয়েছেন উক্ত সংস্থার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডাঃ রিচা বেনসড। তারা জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে বর্তমানে বহু রোগী আছেন যারা নানান ধরনের নার্ভ সংক্রান্ত সমস্যা যেমন- অটিজম, সেরিব্রাল প্যালেসি, নিউরোলজিক্যাল ডিসঅর্ডার সহ বিভিন্ন দীর্ঘমেয়াদি স্নায়ু রোগে আক্রান্ত। আর সেই সমস্ত রোগীদের সম্পূর্ণ সুস্থ করে তুলতেই তাদের এই বিশেষ চিকিৎসা ব্যবস্থা।। সংস্থা সূত্রে দাবি করা হয়েছে বিগত ১০ বছর ধরে মুম্বাইতে তারা নিউরোজেন ব্রেইন এন্ড স্পাইন ইনস্টিটিউট সাফল্যের সঙ্গে চালিয়ে আসছেন। এছাড়াও পৃথিবীর ৬০ টি দেশের ৮ হাজারেরও বেশী রোগীকে এখনও পর্যন্ত তাদের সুস্থ জীবন ফিরিয়ে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক ডাঃ রিচা বেনসড। উদাহরণ হিসেবে তিনি জানান, ঝাড়গ্রামের মানিকপাড়ার ইলেক্ট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পড়ুয়া সাহেব দাস নামে এক যুবক ২০১৫ সালে দুর্গাপূজার অষ্টমীর দিনে ঝাড়গ্রামের খেমাশুলীতে পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়। স্পাইনাল কর্ডে প্রচন্ড আঘাত লাগায় সাময়িক প্যারালাইজড হয়ে পড়েছিল ওই যুবক। পরিবারের একমাত্র ছেলের এই অবস্থার পর তার চিকিৎসা করাতে গিয়েই প্রায় ৩-৪ লক্ষ টাকা খরচ করলেও সুস্থ হয়নি সাহেব। এরপর ওই পরিবার খোঁজ পায় নিউরোজেন ব্রেইন এন্ড স্পাইন ইনস্টিটিউটের। সেইমতো এই সংস্থায় তারা চিকিৎসা করিয়ে বর্তমানে ওয়াকিং টুলস-এর সাহায্যে নিজেই হাঁটতে পারে সাহেব।