বিউটি পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসার চালানোর অভিযোগে এক ডজন মহিলা সমেত গ্রেফতার মালকিন….{ দেখুন ভিডিও }

0
9990

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুর:- ইস্পাত নগরীর অভিজাত এলাকা সিটি সেন্টারের অম্বুজা হাউসিং কলোনির একটি বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হল ১২ জন মহিলা সমেত দেহ ব্যবসা চালানোর অভিযোগে মালকিনকেও। আজ বিকেল পাঁচটা নাগাদ দুর্গাপুর পুলিশের তিনটি থানা নিয়ে গঠিত একটি বিশেষ দল অতর্কিতে হানা দেয় দুর্গাপুরের অম্বুজা হাউসিং কলোনির মেন রাস্তার ওপর থাকা গ্ল্যামারাস বিউটি পার্লারে। এলাকাবাসীর কাছ থেকে গোপন সূত্রে অভিযোগ পেয়ে পুলিশ এই ঘটনার তদন্তে নেমে আজ এই অভিযান চালায়। এলাকাবাসীর আরও অভিযোগ সিটিসেন্টার জুড়ে বেশিরভাগ পার্লারে চলে দেহ ব্যবসার আখড়া। নিয়মিত বাইরে থেকে মেয়েদের নিয়ে এসে এখানে দেহ ব্যবসা চালানো হত। এর আগেও বহুবার এই অভিযোগে বহু বিউটি পার্লার কে সচেতন করা হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। আজ পুলিশের এই অভিযান কে সাধুবাদ জানাচ্ছেন সাধারণ ইস্পাত নগরীর বাসিন্দারা। পুলিশের পক্ষ থেকে জানা গেছে যে আরও তিনটি বিউটি পার্লারে অভিযান চালানো হয়েছে। এই বিউটিপার্লার গুলিতে মূলত মাসাজ পার্লারের নাম করে দেহ ব্যবসা চালানো হতো, দুর্গাপুর শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা এই সব অসাধু বিউটিপার্লার গুলিতে আভিজান চালানো হবে বলে জানা গেছে। দিনের পর দিন বহিরাগত পুরুষ এবং মহিলাদের আনাগোনা বেড়েই চলেছিল এই বিউটিপার্লার গুলিতে। দুর্গাপুরের বুকে আজ আরো তিনটে পার্লারে হানা দিয়ে আটক হয়েছে আরও বেশ কয়েকজন মহিলা ও পুরুষ। স্থানীয়দের অভিযোগ দুর্গাপুরের বুকে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে এই পার্লার সামনে বিউটি পার্লার ও ম্যাসেজ পার্লার এর নাম দিয়ে ভেতরে অসাধু কাজ হয় দীর্ঘদিন ধরে। এরপর কিছুদিন বন্ধ থাকার পর ফের রমরমিয়ে শুরু হয় পার্লারের আড়ালে অসাধু কাজ। বিউটি পার্লারের আড়ালে দেহ ব্যবসা যারা চালান তাদের বিরুদ্ধে সতর্কভাবে অভিযান চালাচ্ছে দুর্গাপুর আসানসোল পুলিশের একটি বিশেষ দল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here