আসানসোল ভ্যাকসিনকাণ্ডে অভিযুক্ত তাবাসুম আরাকে নিয়ে ফের বিতর্ক

0
182

সন্তোষ মণ্ডল, আসানসোলঃ- আসানসোল ভ্যাকসিন কাণ্ডে বিতর্কে জড়ানো আসানসোলের প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র তথা বর্তমান পুর প্রশাসক বোর্ডের সদস্য তাবাসুম আরাকে পুনরায় তার দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দিয়েছে পুরনিগম। আর ওই নির্দেশকে ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। প্রতিবাদে সরব হয়েছে কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা। এদিন তারা আসানসোল পৌরনিগমের সামনে বিক্ষোভ দেখান ও বিক্ষোভ শেষে পৌরনিগমে তাবাসুম আরার দপ্তরের দরজায় কালো পতাকা লাগিয়ে দেন। তাদের অভিযোগ লোক দেখানো শো-কজ করে ও অভিযুক্তকে কোনওরকম শাস্তি না দিয়ে পিছনের দরজা দিয়ে ফের তাকে দায়িত্বে ফেরানো হচ্ছে। তাদের দাবি যিনি মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছেন তাকে দায়িত্বে ফেরানো যাবে না।

প্রসঙ্গত গত ৩ রা জুলাই চবকায় একটি ভ্যাকসিন কেন্দ্রে এক মহিলাকে ভ্যাকসিন দিয়ে বিতর্ক জড়ান আসানসোল পৌরনিগমের প্রশাসক বোর্ডের সদস্য তাবাসুম আরা। বিষয়টি সামনে আসতেই দ্রুত পদক্ষেপ নেয় স্বাস্থ্যদপ্তর। ঘটনার তদন্তের নির্দেশের পাশাপাশি ওই ভ্যাকসিন কেন্দ্রে উপস্থিত চিকিৎসক ও দুই নার্সকে শো-কজ করে আসানসোল পুরনিগমের কমিশনার নীতিন সিংহানিয়া। অন্যদিকে, তাবাসুম আরাকে শোকজ করেন পুর প্রশাসক অমরনাথ চট্টোপাধ্যায়। এমনকি তাকে তার পৌরনিগমের দপ্তরে আসতেও বারণ করে দেওয়া হয়।

এই ঘটনার পর গতকাল অর্থাৎ সোমবার থেকে আসানসোল পৌরনিগমের তরফে তাবাসুম আরাকে তার দপ্তরে ফেরার নির্দেশ দেওয়া হয়। যদিও সোমবার তিনি দপ্তরে আসেননি। এবিষয়ে আসানসোল পৌর প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান অমরনাথ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ” মানুষকে একটা সময় পর ক্ষমা করে দেওয়া দরকার। কিন্তু তাকে তো তার দায়িত্ব থেকে সম্পূর্ণভাবে সরিয়ে দেওয়া যায়না। বিশেষ করে এই কোভিড মহামারী পরিস্থিতিতে। যেখানে সবাইকে দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হচ্ছে। তাই ওনার দায়িত্ব পালনের জন্য ওনাকে অনুরোধ করা হয়েছে। যাতে সময় নষ্ট না হয়, মানুষের সেবার জারি থাকে। ওনাকে তো ফিরিয়ে আনতে হবে, নয়তো ওনার জায়গাটা দেখবে কে? সাত জন লোক মিলে তো ১০৬ টা ওয়ার্ড দেখা যায় না।”

যদিও কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা তাদের দাবিতে অনড়। তাবাসুম তার চেয়ারে বসলে, তারা আরও বৃহত্তর আন্দোলনে সামিল হবেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here