পথ চলিত থেকে সাধারণ মানুষকে করোনা বিষয়ক সচেতন করতে অভিনব উদ্যোগ ঝালদার তুলিন পুলিশ ফাঁড়ির

0
198

জয়প্রকাশ কুইরি,পুরুলিয়া:- করোনার দ্বিতীয় ঢেউ উঠেছে সারা দেশ জুড়ে। আর এর মধ্যেই সমস্ত প্রশাসনিক মহল থেকে শুরু করে অনেকেই নানান প্রকারে করছেন সাধারণ মানুষকে সতর্ক। পুরুলিয়া জেলার ঝাড়খন্ড সীমান্ত লাগোয়া তুলিন পুলিশ ফাঁড়ি, এই করোনা পরিস্থিতিতে এক অভিনব রূপে সেজে উঠেছে।এমনকি দেওয়াল লিখনের মাধ্যমে বলা হয়েছে “সঠিক ভাবে সর্বদা মাস্ক পরুন, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন, সাবান দিয়ে বার বার হাত পরিষ্কার করুন ইত্যাদি ” এমনি নিয়ম বিধি মেনে চলার বার্তা ফাঁড়ির দেওয়ালে ও দরজায় লেখা হয়েছে। নানান অব্যবহারিক জিনিস পত্র দিয়ে সাজানো হয়েছে একটি বাগানও । সেই বাগানে বর্তমানে রয়েছে নানান রঙের গাছ। তারপাশেই রয়েছে একটি পাখিরালয়। তুলিন ফাঁড়ি থেকে জানা গেছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে যখন বেসামাল জনজীবন, মনমরা মানুষ,তখন সাধারণ মানুষকে একটু চাঙ্গা করতেই এরকম অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।জানা যায় বাগান দেখা শোনা থেকে শুরু করে পাখিদের খাবার দেওয়া সবই সমস্ত পুলিশ কর্মীরাই ভাগাভাগি করে থাকেন । বাদ যায় নি সিভিক ভোলান্টিয়াসরা, তারাও কাজের ভাগ চেয়ে নিয়েছেন । তুলিন পুলিশ ফাঁড়ির আধিকারিক গৌতম মাহাত বলেন, এলাকার অনেক মানুষেই সমস্যায় পড়লে এই ফাঁড়িতে আসেন। তাই তারা এসে যেনো বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনা বিষয়ক সচেতনতার জন্য কি কি করতে হবে তা যেনো তাদের নজরে পড়ে আর সেই জন্যই আমরা দেওয়াল ও দরজায় করোনা বিষয়ক সচেতন মূলক বার্তা দিয়েছি। পাশাপাশি অপ্রয়জনীয় দ্রব্য এখানে সেখানে না ফেলে আবর্জনা না করে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় সেগুলো দিয়ে হয়তো একটি বাগান ও পাখিরালয় তৈরী করতে পারবো বলে মনে হয়েছে। শুধুমাত্র পুলিশ ফাঁড়ির সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্যই এবং সচেতনতার লক্ষেই । ফাঁড়ির এরকম কাজের প্রশংসা ও সাধুবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকার মানুষজনেরা। এবিষয়ে পুরুলিয়া জেলা পুলিশ সুপার বিশ্বজিৎ মাহাতো জানান এই উদ্যোগ প্রশংসনীয় |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here