ত্রাণ নিয়ে দলবাজি, সার্কাসের দর্শক পুরো বঙ্গবাসী, প্রশ্ন সাংসদের

0
385

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- আমফানের ত্রাণ নিয়ে দলবাজি এবার প্রকাশ্যে এল। দলীয় লোক জন দের দেওয়া ত্রিপলের মিলল না হদিশ। এদিকে, করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহের পর সাত থেকে আট দিন সময় লাগছে রিপোর্ট আসতে। ততদিনে সংক্রামিত ব্যক্তির দ্বারা ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। এর দরুন সংক্রমনের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে বাঁকুড়ায়। ওদিকে,কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া ডাল মে মাসেই পৌঁছেছে, জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহেও তা পৌঁছলো না মানুষের কাছে। রাজ্য সরকার থেকেও তা বিতরণের জন্য নেই কোনো চাড়। এর পিছনে কি চক্রান্ত আছে , প্রশ্ন ছুঁড়লেন সাংসদ। তাই কৃষকের সম্মান নিধি না পাওয়া সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আজ বাঁকুড়ার ধর্মশালায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্য সরকারকে তুলোধোনা করলেন বাঁকুড়ার বিজেপি সাংসদ সুভাষ সরকার। এছাড়াও জানালেন দলীয় ভাবে রাজ্য জেলা মন্ডল বুথ এলাকায় ভার্চুয়াল সভা শুরু হবে আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই। সে ব্যাপারে প্রচার অভিযানও চলছে। অভিযানে নেমে পড়েছেন বিজেপি কর্মীরাও। তাঁর কথায়,পচা গলা দুর্গন্ধযুক্ত লাশ গাড়িতে তুলে পাচার করার ছবি মিডিয়ায় দেখেও নিশ্চুপ সারা পশ্চিমবঙ্গবাসী। সাংবাদিকদের করা সেই প্রশ্নের উত্তরে সাংসদ বলেন, নিশ্চিতভাবে সব চেপে রাখা হচ্ছে। সারাদিন ধরে ছবি চলছে, লাশের ডেথ সার্টিফিকেট কোথায়? বলে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন রাজ্য সরকারকে। লুকোলে তো সবাই সন্দেহ করবেই। এ প্রসঙ্গে বাঁকুড়ায় ল্যক্ষাতড়া শ্মশান এলাকায় পুলিশের সঙ্গে সাধারণ মানুষের খন্ডযুদ্ধের ঘটনা টেনে তিনি বলেন, কয়েকটি মৃতদেহ রিপোর্টের কারসাজি করে মৃতদেহের নেগেটিভ নমুনা বের করে নিয়ে এসেছে। সবকিছু লুকিয়ে এখন ঘটা করে মানুষকে উত্তেজিত করা হচ্ছে। সবশেষে তিনি এই বলে সচেতন করতে চাইলেন সকলকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here