অন্তঃস্বত্বা গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধারের পর অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী পথে এলাকাবাসী

0
510

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ-

গ্রামের মেয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়ে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়ে পথে নামলেন সম্মিলীত এলাকাবাসী। সোমবার বাঁকুড়ার সিমলাপালের লক্ষীসাগর থেকে বাউরীশোল মোড় পর্যন্ত দীর্ঘ মিছিলে পথ হাঁটলেন এলাকার অসংখ্য মানুষ।

প্রসঙ্গত, প্রায় বছর খানেক আগে সিমলাপালের কুসুমকানালী গ্রামের পিউ মিশ্রের সঙ্গে রাইপুরের কেলেপাড়া গ্রামের সুব্রত চৌধুরীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পিউ এর উপর শ্বশুরবাড়ির লোকজন শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন চালাতো বলে অভিযোগ। পরে ১৭ নভেম্বর রাতে শ্বশুর বাড়ি থেকে পাঁচ মাসের অন্তঃস্বত্বা ঐ গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এই ঘটনার পর মৃতার শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিষ খেয়ে আত্মহত্যার কথা বললেও তার বাপের বাড়ির লোকজন তা মানতে নারাজ। তাদের মেয়েকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন ‘খুন’ করেছে অভিযোগ করে রাইপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে মৃতার স্বামী সুব্রত চৌধুরীকে গ্রেফতার করে।

এদিন প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুন সহ কালো ব্যাজ পরে এলাকার মানুষ অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়ে লক্ষীসাগর থেকে বাউরীশোল মোড় পর্যন্ত মৌন মিছিল করেন। পরে মৃতার কাকা চিত্তরঞ্জন মিশ্র তার ভাইঝিকে শ্বশুর বাড়ির লোকজন অত্যাচার করে মেরে ফেলেছে অভিযোগ করে বলেন, এই ঘটনায় জামাই সুব্রত চৌধুরীকে পুলিশ গ্রেফতার করলেও অন্যতম দুই অভিযুক্ত শ্বশুর, শাশুড়িকে এখনো গ্রেফতার করেনি। এই ঘটনায় দ্রুত অভিযুক্তদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীও জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here