রাস্তা সারাইয়ের দাবি জানাতে গিয়ে মার খেতে হয়েছে স্থানীয়দের , চলছে রাজনৈতিক তরজা

0
292

সংবাদদাতা,কাঁকসাঃ- কাঁকসার গোপালপুর থেকে কুলডিহা পর্যন্ত প্রায় ৭ কিলোমিটার রাস্তা বেহাল অবস্থায় পড়ে আছে দীর্ঘদিন ধরে। গতবছর ১৭ই আগস্ট এই বেহাল রাস্তা মেরামতের দাবি জানাতে গিয়ে গোপালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্যদের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষজন। রাস্তা সারাইয়ের আবেদন জানাতে গিয়ে স্থানীয় বাসিন্দাদের মার খেতে হয় বলেও অভিযোগ। সেই ঘটনার এক বছর অতিক্রম হয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত সেই রাস্তা মেরামতির কোনও উদ্যোগ নেওয়া হল না। অথচ এই রাস্তার ওপর নির্ভর করে রয়েছে ২২ টি গ্রাম। স্থানীয়দের দাবি রাস্তার অবস্থা এতটাই বেহাল যে প্রসব যন্ত্রণা উঠলে ওই রাস্তা দিয়ে কোন গর্ভবতী মহিলাকে নিয়ে গেলে, রাস্তার মধ্যেই প্রসব হয়ে যাবে। এমনকি বেহাল অবস্থার জন্য ওই রাস্তা দিয়ে কোনো অ্যাম্বুল্যান্স যাতায়াত করে না বলেও অভিযোগ।

গতবছর পঞ্চায়েত অফিসের সামনে তুমুল সংঘর্ষ বাধলে প্রশাসনের আধিকারিকরা আশ্বাস দিয়েছিলেন যে ওই রাস্তার মেরামতের কাজ শুরু হবে। কিন্তু দীর্ঘদিন কেটে গেলেও সেই রাস্তার মেরামতের কাজ শুরু হয়নি। কাঁকসা ব্লকের তৃণমূলের ব্লক সভাপতি দেবদাস বক্সীর অভিযোগ, ওই রাস্তাটি বাংলা গ্রামীণ যোজনার আওতায় ঢোকানো হয়েছে। রাস্তা তৈরির পরিকল্পনা হয়ে গেলেও বর্ধমান দুর্গাপুরের সাংসদ এসএস আলুওয়ালিয়া ওই রাস্তাটি নির্মাণের জন্য সই না করায় এখনো রাস্তার নির্মানের কাজ শুরু করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি। তবে ওই বেহাল রাস্তা যাতে গর্ত বুজিয়ে চলাচলের যোগ্য করা যায় সেই বিষয়ে তিনি জেলা শাসকের কাছে আবেদন করবেন বলে জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here