যুবকের ক্ষুরের আঘাতে আহত দুর্গাপুরের ৪০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার

0
1949

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ ফের দুর্গাপুরে আক্রান্ত শাসকদল তথা তৃণমূল কাউন্সিলার। দুর্গাপুরের ৪০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার সুভাষ মজুমদারকে প্রকাশ্যে ধারালো ক্ষুর দিয়ে হামলার অভিযোগ উঠল কালি মিশ্র নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে। বুধবার সন্ধ্যা নাগাদ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। জানা গেছে, সন্ধ্যা নাগাদ প্রত্যেক দিনের মতো কাউন্সিলার সুভাষ মজুমদার বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করছিলেন। সেইসময় স্কুটিতে করে এক যুবক কালি মিশ্র আচমকায় ক্ষুর নিয়ে সুভাষ বাবুর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। ধারালো ক্ষুরের আঘাতে আঙুল কেটে যায়। ঘটনার আকস্মিকতা কাটিয়ে কাউন্সিলারকে বাঁচাতে গিয়ে ক্ষুরের আঘাতে আরও একজন আহত হন। রক্তাক্ত অবস্থায় দুজনকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার পর স্থানীয় জনতা অভিযুক্ত ওই হামলাকারীকে ধরে ব্যাপক গনধোলাই দেয়। তৃণমূল কাউন্সিলার সুভাষ মজুমদারের অভিযোগ, কালি মিশ্র নামে ওই যুবক আগে তৃণমূল কর্মী থাকলেও কিছুদিন আগে বিজেপিতে যোগ দিয়েছে। ঘটনায় বিজেপির মদত রয়েছে বলে আঙুল তুলেছেন আহত তৃণমূল কাউন্সিলার। যদিও অভিযুক্ত কাউন্সিলারের বয়ান অন্য কথা বলছে। তার অভিযোগ, স্থানীয় কয়েকজন তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতি কাউন্সিলার সুভাষ মজুমদারের উপস্থতিতে কয়েকদিন আগে তার রাস্তা আটকায়। জোর করে তার কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা এবং একটি সোনার চেন ছিনিয়ে নেয়। সেই টাকা বারবার চাওয়া সত্বেও না দেওয়ায় এই সে এই হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে অভিযুক্ত। অন্যদিকে স্থানীয় বিজেপির তরফে শাসকদলের তরফে তোলা অভিযোগ অস্বীকার করে জানানো হয়েছে, জঘন্য এই কাজের সঙ্গে কোনওভাবেই যুক্ত নয়। পুলিশ সম্পূর্ন ঘটনার তদন্তে নেমেছে।