দুর্গাপুরের ধবনী গ্রামে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ১

0
2018

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ ফের খবরের শিরোনামে দুর্গাপুর। আবারও বিজেপি-তৃণমূল রাজনৈতিক সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হলেন এক ব্যক্তি। ঘটনা দুর্গাপুরের ফরিদপুর থানার অন্তর্গত ধবনী গ্রামের। জানা গেছে, বুধবার ধবনী গ্রামে বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা একটি বিজয় মিছিল বের করেছিল। অভিযোগ, মিছিল শেষ হওয়ার মুখে আচমকায় তৃণমূল আশ্রিত জনা কয়েক দুষ্কৃতি বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের উপর বাঁশ, লাঠি, আগ্নেয়াস্ত্র ও বোমা নিয়ে হামলা করে। প্রথমে দুষ্কৃতিদের বাঁশ ও লাঠির আঘাতে বিমল বেসরা নামে এক বিজেপি সমর্থকের মাথা ফাটে। অভিযোগ, দুপক্ষের মধ্যে যখন হাতাহাতি ও বচসা চরমে তখন তৃণমূল আশ্রিত দুস্কৃতিরা বিজেপি সমর্থকদের লক্ষ্য করে বোমাবাজি ও গুলি চালাতে শুরু করে। দুস্কৃতিদের গুলিতে গুলিবিদ্ধ হন এক বিজেপি কর্মী। আহতের নাম কাজল হাজরা। জানা গেছে আরও একজন গুলির আঘাতে জখম হয়েছেন। তিনজনকেই চিকিৎসার জন্য দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে পরে গুলিবিদ্ধ দুই আহতকে দুর্গাপুরের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার সকাল থেকে ধবনী গ্রামে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। খবর পেরে ফরিদপুর থানার বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। যদিও ঘটনার সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের কোনও যোগ নেই বলেই জানিয়েছেন দুর্গাপুর ফরিদপুর ব্লকের সভাপতি সুজিত মুখার্জী। তবে লোকসভা ভোটের পর থেকে দুর্গাপুরের বুকে দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা এই প্রথম নয়। ভোটের ফলাফল ঘোষণার পর থেকেই দুর্গাপুরের একাধিকবার রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। কিছুদিন আগেই দলীয় অফিস দখলকে কেন্দ্র করে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের জেরে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল দুর্গাপুরের হস্টেন এভিনিউ এলাকায়। সেখানে জেলা সভাপতি জীতেন্দ্র তিওয়ারির নেতৃত্বে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের বাড়ি ও দলীয় কার্যালয়ে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছিল। বুধবার আবারও ধবনী গ্রামে বিজেপির মিছিলে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠল শাসকদলের বিরুদ্ধে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here