এই বাংলায়-র খবরের জের, শ্রমিক ভবন থেকে সরলো “লেডিস টেলার্স”-র বোর্ড

0
867

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ এই বাংলায় নিউজ পোর্টালের খবরের জের। রাতারাতি শ্রমিক ভবনের দেওয়াল থেকে খুলে নেওয়া হল “লেডিস টেলার্স”-র বোর্ড। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রবল বিতর্কের জেরে চাপে পড়ে ব্যানার খুলে ফেলা হল। মঙ্গলবার অর্থাৎ গতকাল এই বাংলায় ওয়েব পোর্টালে তরফে একটি খবর প্রকাশিত হয়, যেখানে পাঠকরা দেখতে পান দুর্গাপুরের স্টীল টাউনশিপ এলাকার সি-জোন ও ডেভিড মোড় সংলগ্ন Durgapur – NSPCL ( NTPC-SAIL Power Company Limited) এর তৃণমূল শ্রমিক সংগঠন (INTTUC) শাখা অফিসে লেডিস টেলার্সের ব্যানার লাগানো রয়েছে। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, লোকসভা ভোটের সময় তৃণমূল কংগ্রেসের এই শ্রমিক ভবন দলীয় কর্মীদের অন্যতম কেন্দ্র হলেও বেশ কয়েকদিন যাবৎ ওই শ্রমিক ভবন একজন টেলার ব্যবসায়ীকে ভাড়া দেওয়া হয়েছে। আর এই খবর এই বাংলায় প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে শিল্পাঞ্চল জুড়ে বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। শ্রমিক ইউনিয়নের অফিস ব্যবসায়িক ও আর্থিক কাজে ব্যবহারের গুরুতর অভিযোগ উঠতেই সুযোগ পুরোদমে কাজে লাগাতে তৎপর হয়ে ওঠে বিরোধী দলগুলিও। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের তরফে এমনও মন্তব্য করা হয় যে আগামী ২৩শে মে লোকসভা ভোটের ফলাফল আগে থেকে আঁচ করেই শাসক দলের শ্রমিক সংগঠনের ওই অফিসটিকে টেলার ব্যবসায়ীকে ভাড়া দিয়ে দেওয়া হয়েছে, কারণ লোকসভা ভোটে তৃণমূলের পরাজয় নাকি অবশ্যম্ভাবী। এহেন বিভিন্ন বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ক্রমে কোণঠাসা এবং ব্যাপক চাপের মুখ পড়ে রাতারাতি শ্রমিক ভবনের ওই লেডিস টেলারের ব্যানার খুলে ফেলা হয়। বুধবার সকালে গিয়ে দেখা যায় শ্রমিক ভবন ফের আগের অবস্থায় ফিরেছে। যদিও মঙ্গলবারের মতো বুধবারও ওই শ্রমিক ভবনের কোনও সদস্যকেই ওই তল্লাটে খুঁজে পাওয়া যায় না বা তাদের কোনও বয়ানও পাওয়া যায় নি। তবে এই বাংলায়-র পক্ষ থেকে শ্রমিক সংগঠনের কর্ম-কর্তাদের সাধুবাদ জানাই যে তারা তাদের নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে তা শুধরে নিয়েছেন। নিজের ভুল লুকিয়ে রাখার মধ্যে কোনও মাহাত্ম্য নেই, বরং নিজের ভুল শুধরে নেওয়াই মহৎ গুণ। যেসকল মানুষ গতকাল পর্যন্ত শ্রমিক ভবন কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নানারকম মন্তব্য করছিলেন তাদের মুখের ওপর চরম জবাব দিলেন শ্রমিক ভবনের কর্মকর্তারা। চ্যানেল এই বাংলায় সবসময় মানুষের সাথে ও মানুষের সুখ-দুঃখে পাশে থাকতে পেরে নিজেদের গর্বিত মনে করে।