দুর্গাপুরের বসুন্ধরা পার্কের জলাশয় থেকে উদ্ধার যুবকের মৃতদেহ

0
4591

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ পার্কের জলাধার থেকে উদ্ধার হল এক যুবকের রহস্যজনক মৃতদেহ। ঘটনা দুর্গাপুরের স্টীল টাউনশিপ এলাকার বসুন্ধরা পার্কের। মৃতের নাম পুষ্পেন্দ্র কুমার  দুবে (২০)। জানা গেছে আকবরের রোডের বাসিন্দা পুষ্পেন্দ্র-র বাবা পেশায় স্কুল শিক্ষক। মৃত ওই যুবকের বাবার বয়ান থেকে জানা গেছে, শুক্রবার সকাল ৬টা নাগাদ প্রত্যেক দিনের মতো সাইকেল নিয়ে বেড়িয়েছিল সে। কিন্তু সন্ধ্যা হয়ে যাওয়ার পরেও ছেলে বাড়ি না ফেরায় বাবা পঙ্কজ দুবে স্থানীয় থানায় নিখোঁজ অভিযোগ দায়ের করে। শুরু হয়ে পুস্পেন্দ্রুর খোঁজে চারিদিকে খোঁজখবর। গত কয়েকদিন আগেই দুর্গাপুরে অপহরণের ঘটনা ঘটে যাওয়ায় পুলিশও সঙ্গে সঙ্গে ওই যুবকের খোঁজে তদন্ত শুরু করে। এরমধ্যেই পুস্পেন্দ্রুর বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বসুন্ধরা পার্কের দিকে গিয়ে থাকতে পারে পুস্পেন্দ্রু। তাদের বয়ান মতো শনিবার সকালে ওই যুবকের বাবা বসুন্ধরা পার্কে গিয়ে দেখেন পার্কের ভেতরে জলাশয়ের সামনে বহু মানুষের ভিড়। বিপদ কিছু আঁচ করে সামনে গিয়ে পঙ্কজ বাবু দেখেন ছেলের মৃতদেহ জলে ভাসছে। ঘটনা জানাজানি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই এলাকাবাসীরাই পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে পাঠায়। তবে পুস্পেন্দ্রুর এহেন রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে কিছুতেই ধোয়াশা কাটছে না পরিবারের। মৃত যুবকের বাবা পঙ্কজ দুবের বক্তব্য, ছেলে প্রত্যেক দিন এ-জোন সংলগ্ন মেজর পার্কে প্রাতঃভ্রমণে যেত। কিন্তু হঠাৎ করে বসুন্ধরা পার্কে কি জন্য সে গেল তা নিয়ে অন্ধকারে পরিবার। জানা গেছে, পুষ্পেন্দ্র কুমার  দুবে নামে ওই যুবক সাঁতারও জানত না, তাই নিজের বিপদ হতে পারে জেনেও কেন সে হঠাৎ করে জলে নামতে গেল তাও স্পষ্ট নয়।