পর্যটক হীন হয়ে পড়ল রাজ্যের বিখ্যাত টুরিস্ট স্পট দীঘা

0
539

সংবাদদাতা, দীঘাঃ-

নতুন বছর আসার আগেই পর্যটক হীন হয়ে পড়ল রাজ্যের বিখ্যাত টুরিস্ট স্পট দীঘা। কয়েকদিনের মধ্যেই চলে আসছে নতুন বছর ২০২০। এরমধ্যেই বড়দিন উৎসবের আবহে আনন্দে ভাসছে আমজনতা। যদিও খাতা কলমের হিসেবে বড়দিন আসতে এখনও ১ দিন বাকি। অবশ্য এখনই ছুটির আবেগে ভাসছে বাঙালী। আর সেই সুযোগে আপামর বাঙালী কাছে দূরে যে কোনো জায়গাতেই ঘুরতে চলে যাচ্ছেন। তবে ঝটিকা সফরের মধ্যে বাঙালীর অন্যতম পছন্দের স্পট হল দীঘা। যা এই মরশুমে প্রায় জনশুন্য হয়ে পড়েছে। গোটা রাজ্যের মধ্যে আকর্ষণীয় জায়গা হল দীঘা। পর্যটকদের আসা যাওয়া বাড়াতে রাজ্য সরকারের চেষ্টায় আমুল পরিবর্তন ঘটেছে। নতুন ভাবে সেজে ওঠার পর দীঘায় পর্যটকদের আনাগোনাও বেশ বেড়েছিল। কিন্তু হঠাৎই কেন্দ্রের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন এবং চরম শীতের জন্য ভরা মুরসুমেও পর্যটক হীন হয়ে পড়েছে দীঘা। যা নিয়ে রীতিমতো ক্ষোভ প্রকাশ করেছে দীঘার হোটেল মালিক ও বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা। সেখানকার হোটেল মালিকদের মতে, এন এর সি এবং সি সি এ আইনের প্রতিবাদের জেরে বেশ কয়েকদিন ধরে বাতিল হয়েছে দুরপাল্লার ট্রেন গুলিও। যার ফলে সৈকতের পর্যটনে বাঁধা পড়েছে। গত ১২ ডিসেম্বর দীঘায় মুখ্যমন্ত্রীর দুদিনের বানিজ্য সন্মেলন ছিল। যার ফলে কিছুদিন হলেও ওই জায়গায় মানুষের ভিড় ছিল। এদিকে সপ্তাহের শেষ দিন গুলিতে ভিড়ের আশায় ছিলেন ব্যবসায়ী মহল। বেশিরভাগ হোটেলের বুকিং ও ছিল রমরমা। কিন্তু নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন প্রতিবাদের আন্দোলনের আচঁ ছড়িয়ে পড়তেই সমস্ত হোটেল বুকিং বাতিল করা হয়েছে। দীঘা -শঙ্করপুর হোটেল মালিক সংগঠনের সম্পাদক বিপ্রদাস চক্রবর্তী বলেন, এখানে আপাতত ৬২ শতাংশ হোটেল বুকিং বাতিল করা হয়েছে অনির্দিষ্ট কালের জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here