মমতা ব্যানার্জী বাংলাকে আলাদা দেশ মনে করেন, দেশদ্রোহিতা করছেন, পাকিস্তানের পক্ষে উনি– বললেন দিলীপ ঘোষ।

0
516

সংবাদদাতা, বাঁকুড়াঃ- মমতা ব্যানার্জী বাংলাকে আলাদা দেশ মনে করেন, তিনি দেশদ্রোহিতা করছেন। পাকিস্তানের নীতি অবলম্বন করে পাকিস্তানের পক্ষে উনি কাজ করছেন বাঁকুড়ায় বললেন দিলীপ ঘোষ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংবিধান মানেন না। তিনি কোর্ট, আইন, সংসদ মানেন না। গতকাল এন আর সি ও সি এ এ নিয়ে গন ভোট চাওয়ার মধ্য দিয়ে প্রমান করলেন তিনি ভারতবর্ষের স্বার্বভৌমত্ব স্বীকার করেন না। তিনি বাংলাকে স্বতন্ত্র দেশ মনে করেন ও নিজেকে প্রধানমন্ত্রী মনে করেন। এটা দেশের স্বার্বভৌমত্ব ও স্বাভিমানের প্রতি আঘাত। সংসদ ও সুপ্রীম কোর্টের অপমান। তাঁর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার কোনো অধিকার নেই। তিনি দেশদ্রোহিতা করছেন। পাকিস্তান যেভাবে কথায় কথায় কাশ্মীর নিয়ে গন ভোট চাইত রাষ্ট্র সঙ্ঘর কাছে চলে যেত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাই করছেন। পাকিস্তানের নীতি অবলম্বন করে তিনি পাকিস্তানের পক্ষে কাজ করছেন। আজ বাঁকুড়ার তালডাংরা ব্লকের পাঁচমুড়া অঞ্চলের আধকড়া গ্রামে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এন আর সি ও সি এ এ নিয়ে গন ভোটের দাবী নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে একথা বলেন বিজেপি র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পুলিশ কোথাও বিজেপি কে সভা করতে দেয় না। আমাদের গণতান্ত্রিক অধিকার আছে সেই অনুযায়ী সভা করব। পুলিশ অনুপ্রবেশকারীদের তান্ডব দেখছে গত কয়েকদিন ধরে তান্ডবকারীদের বিরুদ্ধে একটাও কেস করেনি একটাও লাঠি চালায়নি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনুমতি না নিয়ে সভা করছে। বিজেপি র জন্য কি আলাদা আইন আছে নাকি। যে পুলিশ মানেনা, আইন মানে না আমরা তাঁদের আইন মানি না। পুলিশ অনুমতি দিক বা না দিক সব জায়গায় সভা হবে। আজ আসানসোলের সভার অনুমতি নিয়ে এভাবেই শাসক তৃনমুল ও মুখ্যমন্ত্রীকে তোপ দাগলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এরপরই তিনি পাঁচমুড়া তন্তুবায় সমবায় সমিতিতে শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি স্টাডি সার্কেল আয়োজিত এক কর্মী সভায় যোগদান করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here