মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দান, সিটি সেন্টারের তিন প্রতিষ্ঠানের

0
1230

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- করোণা উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দানে এ যাবৎ কাল অবধি সাড়া ভালই। শুধু ব্যবসায়ীদের সংগঠনই দিয়েছে ১৭ লক্ষ টাকা, আর বিভিন্ন সংস্থা, প্রতিষ্ঠান এমনকি ক্লাব, ধর্মীয় সংগঠন থেকে প্রায় প্রতিদিনই মহকুমা শাসক, নগর নিগমের মেয়র মারফ্ত অথবা সরাসরি নেট ব্যাংকিং ব্যবস্থায় সাহায্যে পৌঁছচ্ছে নবান্নে। “মানুষ এগিয়ে আসছেন স্বেচ্ছায়, বিভিন্ন সংস্থা যে ভাবে হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাও প্রশংসার যোগ্য,” বললেন মহানাগরিক দিলীপ অগস্তি।

সিটি সেন্টারের নন কম্পানি রিক্রিয়েশন ক্লাব সেখানকার চতুরঙ্গ ময়দানে একটি ফুটবল একাডেমী পরিচালনা করে। যাতে বিভিন্ন এলাকার প্রায় ১০০ জন শিশু-কিশোর ফুটবল খেলায় অংশ নেয়। একাডেমি চালানোর কাজে রাজ্য সরকার দু লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা করেছিল। রাজ্যের সংকটকালে এবার মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে পাঠানো হল ১০,০০১/- টাকার অর্থ সাহায্য। ক্লাবের সচিব বিপ্লব চৌধুরী ও সভাপতি সুদীপ দও রায় বলেন “কোভিদ-১৯ ‘র এই জরুরি পরিস্থিতিতে সরকারের পাশে দাঁড়ানো প্রত্যেকের কর্তব্য।” নগর নিগমের ডেপুটি মেয়র অনিন্দিতা মুখার্জি মহানাগরিকের পক্ষে ক্লাবের দেওয়া চেক গ্রহণ করেন। আবার, চলতি সপ্তাহেই সিটিসেন্টার সর্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটি পক্ষ থেকে সম্পাদক তনময় ধামালি ও যুগ্ম সম্পাদক সুবির লাহিড়ী অনিন্দিতা’র হাতে তুলে দেন ৭,০০০/- টাকার একটি চেক। মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের জন্য।

এদিকে শুক্রবারই নগর নিগমের মহানাগরিকের হাতে ১৫,০০০/- টাকার একটি চেক তুলে দিলেন ‘দুর্গাপুর মুসলিম ওয়েলফেয়ার সোসাইটি’। দুর্গাপুরের সিটি সেন্টার কোট কম্পাউন্ড সংলগ্ন সংস্থাটি সাধারণ ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নিখরচায় ডাবলু.বি.সি.এস কোচিং করানোর পাশাপাশি বিভিন্ন সেবামূলক কাজে যুক্ত। শুক্রবার মহানাগরিকদিলীপ অগস্তি হাতে চেক প্রদানের পর সংস্থাটির সভাপতি চিকিৎসক ডাক্তার এ এফ আজিজুর রহমান বলেন “এটা একটা জরুরী সময়। ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইটা অনেক লম্বা। সকলকে সচেতন হতে হবে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here