জরাজীর্ণ অবস্থায় পানীয় জলের ট্যাঙ্ক ক্ষোভ কংগ্রেস বিধায়কের

0
631

জয়প্রকাশ কুইরি,পুরুলিয়াঃ- বাঁকুড়ার সারেঙ্গায় পানীয় জলের ট্যাঙ্ক ভেঙ্গে পড়ার পর এবার পুরুলিয়ার ঝালদায় বিপদজনক অবস্থায় রয়েছে পানীয় জলের একমাত্র এই ট্যাঙ্কটি,আর ট্যাঙ্কটি যে কোনো সময় ভেঙে পড়তে
পারে বলে আতঙ্কিত এলাকাবাসী | ঝালদা পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত এই পানীয় জলের ট্যাঙ্ক থেকে প্রতিনিয়ত খসে পড়ছে চাঙড়। জানা যায় ঝালদা পৌরসভার জল সংকট মেটাতেই
পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডে ১৯৮৭ সালে ৬ লক্ষ ৮১ হাজার লিটার জল ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এই ট্যাঙ্ক নির্মাণ করা হয়। এলাকা বাসীদের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে কোনো রকম সংস্কার না হওয়ার কারণেই ট্যাঙ্ক জরাজীর্ণ
অবস্থায় পড়ে আছে ,যদিও ট্যাঙ্কটির পাশেই রয়েছে সার্বজনীন প্রাথমিক বিদ্যালয়। ইতিমধ্যে অবশ্য পি এইচ ই তরফে সাবধানতার বোর্ড লাগানো হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ঝালদা পুরসভার তৃণমূল পুরপ্রধান প্রদীপ কর্মকার
জানান সংশ্লিষ্ট দপ্তরে তিনি চিঠি করেছেন, তিনি আশা করছেন খুব তাড়াতাড়ি পি এইচ ই উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। অপরদিকে বাগমুন্ডির বিধায়ক তথা জেলা কংগ্রেস সভাপতি নেপাল মাহাতো একটি সাক্ষাৎকারে
বলেন ঝালদা পৌরসভার বাসষ্ট্যান্ড সংলগ্ন এই পানীয় জলের ট্যাঙ্কটি দীর্ঘদিন ধরেই জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে রয়েছে, সেই খবর কারোই অজানা নয়, প্রশাসন বলছেন ট্যাঙ্কটির নীচে থাকা সার্বজনীন প্রাথমিক বিদ্যালয়
সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কথা, কিন্তু প্রাথমিক বিদ্যালয় সরিয়ে নিয়ে গেলেই কি হবে সমাধান? পি এইচ ই র উপর একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন পি এইচ ই দপ্তর একদম ঢিলেঢালা, তারা সঠিক পর্যবেক্ষণ করার পরও
সঠিক পদক্ষেপ নিতে দেরি করেন। বিষয়টি নিয়ে তিনি বিধানসভায় তুলে ধরবেন বলেও তিনি জানান। বাঁকুড়া সারেঙ্গায় ঘটে যাওয়া ঘটনার পর থেকে ঝালদা বাসির মধ্যে এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে কবে এই জরাজীর্ণ পানীয়
জলের ট্যাঙ্কটির সংস্কার করা হবে? কবেই বা প্রশাসন এর বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণ করবে? আর কবেই বা কাটবে স্থানীয়দের আতঙ্ক?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here