দুর্গাপুরে আগ্নেয়াস্ত্র সহ পুলিশের জালে দুই ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া

0
5570

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ আগ্নেয়াস্ত্রসহ এবার পুলিশের জালে ধরা পড়ল দুই ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া। ঘটনা দুর্গাপুরের ফুলঝোড় এলাকার এক বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের। জানা গেছে ধৃতদের নাম সোহম চ্যাটার্জী ও নয়ন দে ওরফে কালু। এরা দুজনেই ওই ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের এ্যাপ্লাইড ইলেক্ট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এর চতুর্থ বর্ষের ছাত্র। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোহম চ্যাটার্জী এমএএমসির বি-১ এর বাসিন্দা ও নয়ন দে অমরাবতী কলোনীর বাসিন্দা। পুলিশের দেওয়া তথ্য থেকে জানা গেছে, গত কয়েকদিন থেকে দুর্গাপুরের স্থানীয় ওই এলাকা থেকে অভিযোগ আসছিল ওই দুই যুবক আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সাধারণ মানুষকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়ে টাকা আদায় করছিল। এলাকাবাসীদের অভিযোগ, রাত হলেও বেশ কিছু বহিরাগত যুবক ওই দুই যুবকের সঙ্গে দেখা করতে আসত। অথচ অবাক করার বিষয় হল, ধৃত ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র সোহম যথেষ্ট মেধাবী ছাত্র হিসেবে পরিচিত ছিল এলাকায়। মাধ্যমিকে ৯২ শতাংশ ও উচ্চমাধ্যমিকে ৮৯ শতাংশ নম্বর পেয়েছিল সে। ফলে কিভাবে এহেন মেধাবী পড়ুয়া এইধরনের অসামাজিক কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়ল তা নিয়ে পুলিশও ধোঁয়াশায়। ওই দুই যুবকের কাছ থেকে একটি সিক্স শটার দেশী পিস্তল ও চার রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান কোনও বড়সড় অপরাধের ছক কষেই স্থানীয় কোনও আগ্নেয়াস্ত্র সরবরাহকারীর কাছ থেকে এই আগ্নেয়াস্ত্র তারা কিনেছিল। তাদের মোবাইল ফোন খতিয়ে দেখেও বেশ কিছু আগ্নেয়াস্ত্রের ছবি পেয়েছে পুলিশ। বুধবার ধৃত দুই যুবককে দুর্গাপুর মহকুমা আদালতে পেশ করে ৫ দিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন জানিয়েছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here