ফের দুর্গাপুরে রাতের অন্ধকারে রহস্যজনকভাবে পুড়লো গাড়ি

0
1575

নিউজ ডেস্ক, এই বাংলায়ঃ মাঝে কয়েকদিনের ব্যবধান থাকলেও ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি। ফের রাতের অন্ধকারে দুষ্কৃতিদের তান্ডবে শিল্পশহরে পুড়লো একাধিক গাড়ি। ঘটনাস্থল আবারও সেই দুর্গাপুর ইস্পাত নগরী এলাকা। জানা গেছে, ইস্পাত নগরীর এডিসনে পরপর দুটি বাড়িতে দাঁড়িয়ে থাকা বাইক ও চারচাকা গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় দুস্কৃতিরা। দুই বাড়ির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গভীর রাতে বাড়ির বাইরে অস্বাভাবিক আওয়াজ পেয়ে তারা বেরিয়ে এসে দেখেন বাড়িতে থাকা বাইক ও চার চাকা গাড়িটিতে দাউদাউ করে আগুন জ্বলছে। সঙ্গে তারা দমকলে খবর দিলে দমকলের একটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে বেশ কিছুক্ষনের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পুলিশে খবর দেওয়া হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তবে ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। শিল্পাঞ্চলে এই ঘটনা শুক্রবার প্রথম নয়। গত কয়েক মাস যাবৎ দুর্গাপুরের স্টীল টাউনশিপ এলাকাসহ একাধিক এলাকায় একইভাবে রাতের অন্ধকারে গ্যারেজে বা বাড়ির বাইরে রাখা গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার একের পর এক ঘটনা ঘটে গেলেও এখনও পর্যন্ত পুলিশ প্রশাসনের তরফে এই দুষ্কৃতি দলের কোনও কিনারা করতে পারেনি। পুলিশের এহেন ব্যর্থতায় স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ ও আতঙ্কিত শহরবাসী। শহরের একাংশের বাসিন্দাদের অভিযোগ, পুলিশ প্রশাসন রাতে টহলদারির নামে রাস্তায় রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করিয়ে তোলা আদায়ে ব্যস্ত। ফলে রাতের শহরের নিরাপত্তা সম্পূর্ণ ফস্কা গেরো। যার ফলস্বরূপ একই ঘটনার বারবার পুনরাবৃত্তি হওয়া সত্বেও দুষ্কৃতিদের ধরতে ব্যর্থ পুলিশ। এখানেই থেমে না থেকে শহরবাসীর অভিযোগ, দিনের শহরে পুলিশ প্রশাসনের মধ্যে হেলমেটবিহীন বাইক আটকে চালান কাটার মধ্যে যে তৎপরতা দেখা যায় শহরবাসীর নিরাপত্তার ক্ষেত্রে তার ছিটেফোঁটা তৎপরতাও নজরে পড়েনা। ফলে দিনের পর দিন দুর্গাপুর জুড়ে দুষ্কৃতিমূলক কাজকর্ম বেড়ে চললেও পুলিশ প্রশাসন তা প্রতিরোধে ব্যর্থ বলে মনে করছে শহরবাসী। তারা রাতের শিল্পশহরে নিরাপত্তা বৃদ্ধিতে পুলিশি নজরদারি বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন। সেইসঙ্গে অবিলম্বে শিল্পশহরে সক্রিয় দুস্কৃতকারী চক্রটিকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here