ধানের জমিতে ৩ দিন হানা চালালো ১৩ টি হাতি

0
790

সংবাদদাতা, পুরুলিয়াঃ– জেলার আদিবাসী অধ্যুষিত বাঘমুন্ডি বনাঞ্চল সংলগ্ন গ্রামগুলিতে টানা তিনদিন ধরে তান্ডব চালানো ১৩ টি হাতির একটি বুনো পাল। বাঘমুন্ডি ব্লকের বুড়দা জঙ্গঁল বীটে আচমকা হানা দেয় বুনোহাতির ওই পাল। এরা পুরুলিয়া জেলারই স্থায়ী হাতি।
সোমবার রাত্রে জঙ্গঁল থেকে বেরিয়ে এরা উকাদা গ্রামে হানা দেয়। তছনছ করে বিঘার পর বিঘা জমির ধান। জঙ্গঁল থেকে বেরিয়ে, তারা কালীমাটি গ্রামের পাশ দিয়ে এসে উকাদা’র পাকা ধানে হানা দেয়। খবর পেয়ে গ্রামের কৃষকদের সাথে জোট বেঁধে বনদপ্তরের ‘ক্যুইক রেসপন্স টিম’ ওই হাতির পাল খেদানোর কাজে লেগে পড়ে। সে সময়ই বনকর্মী আর গ্রামবাসী মিলে হাতির আক্রমনে আহত হন মোট নয় জন। সাময়িক ভাবে পালায় দলটি ও। কিন্তু, মঙ্গলবার, বুধবার দফায় দফায় ঝালদা বনাঞ্চলের খামার এলাকা দিয়ে ফের বুড়দা বীট এলাকায় হানা দেয় ওই ১৩টি হাতি। সেখানে খয়রাবেড়া গ্রামে এসে প্রায় তিন একর ধান নষ্ট করে দলটি। বাঘমুন্ডি বনাঞ্চলের রেঞ্জার গিরিধন রায় বলেন, “ধান যখন প্রায় পাকে, হলুদ হয়ে আসে, তখন তার গন্ধেই জঙ্গঁল থেকে বুনো হাতিরা হানা দেয় ধানের ক্ষেতে। আমরা প্রথমতঃ চেষ্টা করি হাতিরা কোনওভাবেই যেন লোকালয়ে না ঢুকে পড়ে”।
এদিকে, ফসল নষ্ট হওয়ায় ক্ষতিত্রস্ত বাঘমুন্ডির গ্রামগুলির চাষীরা অভিযোগ করেছেন, গোড়ায় সচেতন হলে এতটা ফসলহানি আটকানো যেত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here