পাচারের পথে কালনায় উদ্ধার বিরল তক্ষক

0
711

সংবাদদাতা, কালনাঃ- বে আইনী ভাবে বিরল প্রজাতির তক্ষক রাখা ও বিক্রির করার চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার হল দুই ব্যাক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে সুমদ্রগড়ের গোয়াল পাড়ায়। এই বিরল গেকো প্রজাতির তক্ষক যার বাজার মূল্য প্রায় কয়েক লক্ষ টাকা। পূলিশের প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে এই প্রজাতির তক্ষক নেপাল ও বাংলাদেশ হয়ে চীনে পাচার করা হতো। কালনার নাদনঘাট থানা ও কাটোয়া বন দপ্তরের যৌথ উদ্যোগে এই দুই জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এই দুই অভিযুক্তকে পুলিশ আজ কালনা আদালতে তোলে।
সারা বছর ধরে এই বিরল প্রজাতির হাজার হাজার তক্ষক ভারত থেকে চীনে পৌছায় নেপাল করিডর দিয়ে চোরা পাচারকারীদের মারফত। পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুরের বিস্তীর্ণ জঙ্গলমহল এলাকায় এই তক্ষকদের বাস। বেশ কয়েকটি পাচার চক্র সারা বছর ধরে তক্ষক পাচারের সঙ্গে যুক্ত। পূর্ব বর্ধমান জেলার বিভাগীয় বনাধিকারিক দেবাশীষ শর্মা জানান, “চীনের মতো কয়েকটি দেশে এই তক্ষককে আয়ুর্বেদিক ঔষুধ তৈরীর কাজে লাগে বলে আমরা জানতে পেরেছি। সরকারি স্তরের সমস্ত রকম ভাবে এই পাচার রোধ করার প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে”। ২০১৮-১৯ সালে বর্ধমান বনবিভাগের আওতায় প্রায় ২৫ টি বিরল প্রজাতির তক্ষক উদ্ধার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here