সম্পর্কে অমত তাই মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে চাকু দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপালো বাবা

0
323

সংবাদদাতা, উত্তর ২৪ পরগনাঃ-

মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে প্রবেশ করে নিজের মেয়েকে চাকু দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপানোর অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে। এই নির্মম চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগর গোলবাজার এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অশোকনগরের জনকল্যান এলাকার বাসিন্দা বর্ণালী হালাদার ২১ বছরের তরুণী। গোলবাজারের গোডাউন এলাকার বাসিন্দা শঙ্কর হালাদারের সঙ্গে বর্ণালীর শারীরিক সম্পর্ক প্রায় ৪ বছর ধরে ছিল। কিন্তু বর্ণালীর পরিবারের সদস্যরা এই ব্যাপারে বরাবরই তাদের এই সম্পর্কে অমত ছিল। মাস চারেক কাঠ মিস্ত্রী শঙ্কররের সাথে বর্ণালী বাড়ি থেকে পলাতক হয়। শ্বশুরবাড়িতে নতুন করে সংসার শুরু করেন বর্ণালী।

এরপর একদিন মেয়েকে ফিরিয়ে আনার জন্য বর্ণালির বাবা ওই যুবকের বাড়িতে যান। বর্ণালীর বাবা মেয়েকে বলেন এই বিয়ে নিতে তারা প্রস্তুত। কিন্তু বর্ণালি কোনোক্রমেই বাবার সঙ্গে দেখা করেননি। এরপর হঠাৎই বর্ণালীর শ্বশুরবাড়িতে তার বাবা সাইকেল নিয়ে রবিবার সকালে আসেন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মেয়েকে সে বাড়ির বাইরে থেকে জোড়ে জোড়ে ডাকতে থাকে। দুলালবাবুর ডাক পেয়ে বর্ণালীর শ্বাশুড়ি বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসেন। শ্বশুর, শ্বাশুড়ির অভিযোগ বর্ণালীর বা্বা বাড়িতে ঢুকে নিজের মেয়েকে এলোপাথাড়ি চাকু দিয়ে কোপাতে থাকে। চিৎকার করলে পাড়ার প্রতিবেশীরা আসার আগেই অভিযুক্ত চম্পট দেন। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় বর্ণালিকে প্রতিবেশীরা হাসপাতালে ভর্তি করে। সঙ্কটজনক অবস্থায় বর্ণালি এখন আরজিকর মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসারত। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পুলিসি অভিযোগ দায়ের করেছে গৃহবধূর পরিবার। পুলিশও গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here