তিন বিঘা জমিতে না কাটা ধান আগুন পুড়ে নষ্ট

0
190

সংবাদদাতা, বর্ধমানঃ– ক্রমশই বাড়ছে বিশ্ব উষ্ণায়ন। বিশ্ব উষ্ণায়ন রোধ করতে এবং পরিবেশ দূষণ কমানোর লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছেন অনেক সমাজসেবী সংগঠন। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্তে ইতিমধ্যে ধান কাটা শুরু হয়েছে। বর্তমানে সময় ও খরচ বাঁচানোর জন্য অধিকাংশ কৃষক মেশিনের দ্বারা ধান কাটার কাজ করছে। যার কারণে অধিকাংশ মাঠে পড়ে থাকে ধানের অবশিষ্ট অংশ। সেই অবশিষ্ট অংশ অর্থাৎ ধানের খড় ধান মাঠে পড়ে থাকার ফলে সেগুলি জ্বালিয়ে দেয় কৃষকেরা। প্রশাসনের পক্ষ থেকে ধান মাঠে নাড়া না পোড়ানোর জন্য বারবার নানান ভাবে প্রচার করা হলেও একইভাবে কৃষকেরা প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা কে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মাঠেই নাড়া পোরায়। যার কারণে একদিকে যেমন পরিবেশ দূষিত হয় অপরদিকে বিশ্ব উষ্ণায়ন বৃদ্ধি পায় সেই সাথে জমির উর্বরটাও কমে যায়। কিন্তু এই খড়ে আগুন লাগানোর কারণে আজ সর্বস্বান্ত হয়ে গেলেন বেশ কয়েকজন কৃষক, আগুনে পুড়ে নষ্ট হয়ে গেল তিন বিঘা জমির না কাটা ধান।

আজ দুপুরে পূর্ব জেলার কাটোয়া করজগ্ৰাম পঞ্চায়েতের শ্রীরামপুর গ্ৰামের ঝিনুকঘাটা ব্রিজের কাছে আগুনে পুড়ে নষ্ট হয়ে গেছে ৩ বিঘে জমিতে না কাটা ধান। গ্ৰামের মানুষেরা আজকে মাঠে গিয়ে দেখে ৩বিঘে জমির ধান আগুন জ্বলে ধান ছাই হয়ে গেছে। জমিতে কে বা কারা নেড়া পুরোনোর সময় এই তিন বিঘের জমির না কাটা ধান ও আঁটি বাঁধা ধানে আগুন দিয়ে দেয়। ফলে আঁটি বাঁধা জমিতে সব ধান আগুনে পুড়ে নষ্ট হয়ে গেছে। ধান আগুনে পুড়ে নষ্ট হয়ে যাওয়ার অনেক ক্ষতি হল চাষীদের। উক্ত ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন কাটোয়া ২ নম্বর ব্লকের সহ কৃষি অধিকর্তা সুমনা মন্ডল। সুমনা দেবী জমিতে গিয়ে সমস্ত পুড়ে যাওয়া ধান নিজের চোখে দেখেন ও ক্ষতিগ্রস্ত চাষিদের পাশে থেকে সমস্ত রকম সাহায্যের আশ্বাস দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here