দুর্গাপুরের প্রথম ওলা বাইক “মহিলা রাইডার” সুস্মিতা দত্ত

0
1117

নিজস্ব সংবাদদাতা, দুর্গাপুরঃ- আমাদের দেশ তথা রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় নারী নির্যাতনের সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। তাই দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলের আইনস্টাইন এলাকার বাসিন্দা সুস্মিতা দত্ত নামে এক গৃহবধূ নারীদের নিরাপত্তার জন্য একটি বিশেষ প্রকল্প চালু করেন। দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলে রাতের বেলায় অটোতে বা টোটোতে চাপতে মহিলারা নিরাপত্তাজনিত কারনে কিছুটা দ্বিধাগ্রস্ত হন। এমনকি অনেক সময় অটো বা টোটো সঠিক সময়ে পাওয়া দুস্কর হয়ে ওঠে। তাই মহিলাদের নিরাপত্তা দিতে সুস্মিতা দত্ত নিজের স্কুটি নিয়ে মহিলাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন। ঐ মহিলা ওলা সংস্থার কাছে গিয়ে তাদের সমস্ত গাড়ির কাগজ পত্র চেক করেন মহিলাদের নিরাপত্তার জন্য। এবং নিজেও অলা সংস্থার সঙ্গে নিজেকে নিয়োগ করেন। ওলা সংস্থা মহিলাকে ওলা পার্টনার নামে একটি অ্যাপে তাকে নথিভুক্ত করেন। ব্যাস সুস্মিতাও তাঁর কাজ শুরু করে দেন। সুস্মিতা এখন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মহিলাদের গন্তব্যস্থলে পৌঁছে দিচ্ছেন। অনেক সময় পুরুষেরা তাঁর নাম্বারে কল করলে তাদেরও তিনি গন্তব্যস্থলে পৌঁছে দেন বিনা দ্বিধায়। দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলে পুরুষ ওলা বাইক রাইডার অনেক আছে কিন্তু এই প্রথম কোনো মহিলা বাইক রাইডার হলেন সুস্মিতা। দুর্গাপুরের মেয়ে সুস্মিতা দুর্গাপুর মহিলা কলেজের ছাত্রী ছিলেন। পরে তিনি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সাথেও যুক্ত ছিলেন। এবং পরে তিনি একটি মহিলা হোস্টেলও চালাতেন। সুস্মিতার এক মেয়ে কারমেল স্কুলে ক্লাস ৬ এ পড়ে। সুস্মিতার স্বামী পেশায় একজন ব্যবসায়ী। পরিবারের আপত্তি থাকলেও তিনি মনের থেকে কোনোদিন হার মানেন নি। দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চল তাঁর এই প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানাই। সুস্মিতার মতো আরো মেয়ে নারী নিরাপত্তার কাজে এগিয়ে আসুক এটাই দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলবাসীর আবদার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here