“জল ধরো জল ভরো” প্রকল্পের মাধ্যমে ৪০ জন মৎস্য চাষীদের মাছের চারা বিতরণ শান্তিপুর পঞ্চায়েত সমিতির মৎস্য বিভাগ থেকে

0
443

সংবাদদাতা, নদীয়াঃ- দীর্ঘ লকডাউনে কর্মহীন অবস্থায় কাটাতে হয়েছে অনেকেই। এখন কি বাইরে থেকে পরিযায়ী শ্রমিকরা দেশে ফিরে অন্য কোনো কাজের উপায় না পেয়ে, পুকুর খাল বিল নদী নালা থেকে মাছ ধরে জীবিকা অর্জন করার বিকল্প পথ বেছে নিতে বাধ্য হয়েছেন তারা। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন দীর্ঘদিন ধরে এই পেশার সঙ্গে যুক্ত মূল মৎস্যজীবীরা। প্রাকৃতিক ভাবে এ বছর বর্ষা সঠিক সময়ে আশায় নদী-নালা খাল-বিল পুকুর জল ভর্তি রয়েছে কানায় কানায়। তাই সরকারি উদ্যোগে বিগত তিন মাসে তিনবার প্রত্যেক চাষীকে ১০০০ করে মাছের চারা দেওয়ার ব্যবস্থা হয় সরকারিভাবে। আজ নদীয়ার শান্তিপুর পঞ্চায়েত সমিতির মৎস্য দপ্তরের কর্মাধক্ষ্য নিখিল সরকার এবং পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি রিনা প্রামানিক সহ বিভিন্ন সদস্যদের উপস্থিতিতে দুপুর বারোটা নাগাদ সম্পন্ন করেন এই অনুষ্ঠান। সভাপতি রিনা প্রামাণিক জানান মুখ্যমন্ত্রীর আন্তরিকতায় এর আগে একজন মৎস্যচাষী হিসেবে সরকারি মান্যতা অর্থাৎ মৎস্য কার্ড, ভাতা, মাছধরা জালজাল, বিক্রির উদ্দেশ্যে সাইকেল, এবং মাছের হাঁড়ি প্রদান করা হয়েছিলো আগেই। মৎস্য কর্মদক্ষ নিখিল সরকার জানান নদীয়া জেলার মধ্যে শান্তিপুর ব্লক অন্যতম, যেখানে ৫৩ জন মৎসজীবীকে ভাতা দিতে আমরা সমর্থ হয়েছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here